Home / উপজেলা সংবাদ / হাইমচর / হাইমচরে শিশুকে আঘাতের ঘটনায় আবারো হামলা : আহত ৪

হাইমচরে শিশুকে আঘাতের ঘটনায় আবারো হামলা : আহত ৪

চাঁপুরের হাইমচরে নির্মম ভাবে আড়াই বছর বয়সী শিশু তাহহিদ ইসলাম শিহাবকে আঘাতের ঘটনায় আবারো তার পরিবারের ওপর অর্তকিত হামলা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলাকারীদের আঘাতে রক্তাক্ত জখম হয়ে শিশু বৃদ্ধাসহ একই পরিবারের ৪ জন গুরুতর আহত হয়ে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

১৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯ টায় হাইমচর উপজেলার চরভাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, ওই গ্রামের
আব্দুল আজিজ গাজীর স্ত্রী বৃদ্ধা মোসাম্মৎ বেলবা বেগম (৭০), তার ছেলে ইদ্রিস গাজী (৪৫), মেয়ে শাহিদা বেগম (২২) ও তার ছেলে আড়াই বছর বয়সী শিশু তাহহিদ ইসলাম শিহাব।

আহত ইদ্রিস গাজী ও তার পরিবারের লোকজন জানান, কয়েকদিন আগে তাদের দু,পরিবারের দুই শিশুদের ওই ঝগড়াকে কেন্দ্র করে একসময় সে ঝগড়া বড়দের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে। আর তাদের উভয় পক্ষের সে ঝগড়া বিবাদ মিমাংসা করার জন্য স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা শালিস বৈঠক করেন। তারা জানান, বৈঠকে সিন্ধান্ত হয় শিশুরা যাতে একজন অন্যজনের ঘরের কাছে গিয়ে খেলাধুলা বা ঝগড়া বিবাদ না করতে পারে সেজন্য তারা যেনো তাদের বাড়ির সীমানায় বেড়া দিয়ে রাখেন।

তার প্রেক্ষিতে ক,দিন আগে শাহিদা বেগমের পরিবারের লোকজন তাদের বাড়ির আঙিনায় টিন দিয়ে বেড়া দিলে, ঘটনার দিন সকালে প্রতিপক্ষের লোকজন সে বেড়া ভেঙ্গে ফেলে দেয়।

তাদের অভিযোগ গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আহত শাহিদা বেগমের ভাতিজি রাস্তা দিয়ে হেটে যাওয়ার সময় নাসির কাজীর স্ত্রী সালমা বেগম তার পথ প্রতিরোধ করে তাকে মারধর করতে দেখে শাহিদা বেগম তাকে ছাড়ানের জন্য এগিয়ে গেলে তারা শাহিদা বেগম ও তার শিশু পুত্রকে আঘাত করে গুরুতর আহত করে।

আর সে ঘটনা নিয়ে স্থানীয় বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। তারা জানান, সে ঘটনার বিষয়টি মিমাংসার জন্য স্থানীয় ভাবে বসার পরিকল্পনা নিয়ে তারা তাদের বাজারে ঘরোয়া ভাবে আলাপ আলোচনা করে বাড়ি ফেরার পথে আবারো অতর্কিত হামলা চালায়। তাদের হামলায় সে রক্তাক্ত জখম হয়ে গুরুতর আহত হয়ে পড়লে তার ডাক চিৎকারে এলাকার মানুষজন এগিয়ে গিয়ে তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করায়।

এ বিষয়ে হামলাকারীদের সাথে যোগাযোগ করতে বেশ, কয়েকবার মুঠোফোনে চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৭ নভেম্বর ২০১৮ বুধবার

Leave a Reply