Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Home / চাঁদপুর / চাঁদপুর শহরে ডিবি পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান
madok

চাঁদপুর শহরে ডিবি পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান

চাঁদপুর জেলা প্রধান ব্যাবসায়িক এলাকা শহরের পুরাণবাজারে মডেল থানা ও ডিবি পুলিশ মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা এবং সচেতনতামূলক প্রচারনা করেছে। বুধবার বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা পর্যন্ত বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় পুলিশের একাধিক টীম মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন, চুরি-ছিনতাই প্রতিরোধে সচেতনাতামূলক প্রচারনা করেন।

চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নাসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে একাধিক পুলিশ অফিসার ও বিপুল সংখ্যক নারী ও পুরুষ পুলিশ সদস্যে অংশগ্রহনে প্রথমে অভিযান শুরু হয় ম্যারকাটিজ রোড থেকে। ওসমানিয়া মাদরাসা সংলগ্ন এলাকা মধ্য শ্রীরামদীর বৌ-বাজার, আইল্লার মসজিদ, টাওয়ার এলাকা, টিজি রোড, সরকারি পুকুরপাড়, কবরস্থান, রিফিউজি কলোনী, নিতাইগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় গিয়ে শেষ হয় এ অভিযান। এ সময় মাদক মামলার আসামী সুমনকে বৌ-বাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়। মাদক সংশ্লিষ্টার সন্দেহে বিল্লালসহ আরো এক তরুনকে আটক করে পুলিশ। সব শেষে হরিসভা -মধ্য শ্রীরামদী চৌরাস্তা মেয়র সড়কে সচেতনতামূলক পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নাসিম উদ্দিন বলেন, ‘পুলিশ সুপার মহোদয়ের ডাইরেক্ট নির্দেশ সেই টেকনাফ থেকে মাদকের যতরকম হাত বদল হয়। এই চেইনের মধ্যে যাকে পাব,সে যেই হোক। তাকে ছাড় দেয়া হবে না।’

তিনি আরো বলেন, যারা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত তাদের ব্যাপারে সরকার ও রাষ্ট্র জিরুটলারেন্স ঘোষনা করেছে। সুতরাং আমরা মাদকের সাথে সম্পৃক্তদের সর্বোচ্চ সর্তক করছি। ছেলে, স্বামী অথবা মেয়ে হোক, তাকে মাকক থেকে বিরত রাখতে হবে। তা না হলে কোন ছেলে মাদকের সাথে জড়িত থাকে, তার বাবাকে, মাকে, ভাইকে এবং বোনকে আইনের আওতায় নিয়ে যাব। আমরা চাই আপনাদের পরিবারের কোন সন্তান,আত্মীয়-স্বজন এবং এলাকাবাসী ক্ষতিগ্রস্ত না হয়।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে ওসি বলেন, সন্ধ্যার পর ছেলে সন্তানদের পড়ার টেবিলে বসাতে হবে। তারা যেন এখানে-সেখানে আড্ডা না দেয় এবং গুপছিতে না থাকে। প্রত্যেক অভিভাবককে নৈতিক দায়িত্ব পালন করতে হবে। এ এলাকার অনেকে চুরি ও মাদকের সাথে জড়িত। চোরাই পন্য ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে। এসব বন্ধ করা না হলে চুরি.মাদক ,সন্ত্রাস ও ইভটিজিং এর সাথে জড়িত থাকলে তাদেরকে ধরে নিয়ে যাওয়া হবে থানায় কেউ তদ্বির করতে যাবে না।

অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর সদর মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন মোঃ মনির আহমেদ, ইন্সপেক্টর তদন্ত হারুন-অর-রশিদ, ইন্সেপেক্টর আব্দুর রউফ, ডিব এসআই মহিউদ্দিন,আল-আমিন,মশিউর রহমান,পুরানবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনসপেক্টর মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ, এসআই জাহাঙ্গির আলমসহ অন্যন্য অফিসার ও পলিশ সদস্যবৃন্দ।

প্রতিবেদক: আশিক বিন রহিম
১৭ জানুয়ারি,২০১৯

Leave a Reply