Home / চাঁদপুর / মেঘনায় প্রবল স্রোতে ট্যাংকারের ধাক্কায় পাথর বোঝাই জাহাজ ডুবি
প্রতীকী ছবি

মেঘনায় প্রবল স্রোতে ট্যাংকারের ধাক্কায় পাথর বোঝাই জাহাজ ডুবি

চাঁদপুর মেঘনা নদীতে প্রবল ঘুর্ণি স্রোতের কারণে এমটি সামিয়া-২ নামের তেলের ট্যাংকারের ধাক্কায় মুন্সী এক্সপ্রেস নামক একটি কালো পাথর বোঝাই জাহাজ পানিতে তলিয়ে গেছে।
১৮ জুলাই বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ৯টার সময় চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার হরিসভা এলাকায় মেঘনা নদীতে এ দূর্ঘটনাটি ঘটে । এই ঘটনায় ডু্বে যাওয়া জাহাজে থাকা ১০ জনকে জীবিত উদ্ধার করেছে স্থানীয় জেলেরা।

জাহাজের শ্রমিক মোঃ ছগির হোসেন জানান, মংলা থেকে পাথর নিয়ে নারায়নগঞ্জ কাঞ্চন যাচ্ছিলাম। এ জাহাজে ১২শ টন পাথর ছিলো। হাইস্পীড কোস্পানীর সামিয়া-২ তেলবাহী ট্যাংকার ওভার ট্যাকিং করার সময় এমভি সোয়াইবা মুন্সি এক্সপ্রেস নামক পাথর বোঝাই ঢেক বরাবর সজোরে আঘাত করলে তা ফেটে নদীতে ডুবে যায়। ।

এসময় মাষ্টার, গ্রীজার ও সুকানী সহ ১০ জন নদীতে ঝাপ দেয়। তারা ডাক চিৎকার করলে পাড়ে থাকা জেলেরা ইঞ্জিন চালিত নৌকা নিয়ে ১০ জন শ্রমিককে উদ্ধার করে পাড়ে নিয়ে আসে।

উদ্ধার হওয়া শ্রমিকরা হলো,নজরুল ইসলাম (৩২) ইমন (২৩) শরীফুল ইসলাম (৩৫) মহিউদ্দিন (৩২) রাজিব (২৫) আরিফ (৩২) ছগির (৩০) ইয়াদুল (১৮) সাফায়েত (২০) ও আলমগীর (৩২)।

পুরাণবাজার এলাকার জেলে ছোবহান দেওয়ান, বিল্লাল হাওলাদার, রকমান হাওলাদারসহ বেশক য়েকজন জানান, হাঠাৎ করে তারা একটি বিকট শব্দ শুনতে পায়। নদীপাড়ে গিয়ে দেখে একটি জাহাজ ডু্বে যাচ্ছে। তাৎক্ষণাৎ তারা প্রাণে বেঁচে যাওয়া ১০জন আরোহীকে উদ্ধার করেন।

ডুবে যাওয়া মুন্সী এক্সপ্রেস নামক জাহাজের ড্রাইভার মহিউদ্দিন হোসেন জানান, মংলা বন্দর থেকে ছেড়ে আসা নির্মান কাজের কালো পাথর নিয়ে তাদের জাহাজটি চাঁদপুরের দিকে আসতেছিল। এসময় প্রচুর স্রোতের কারণে তেলের জাহাজ সামিয়া- ২ তাদের জাহাজের উপর উঠিয়ে দিলে সেটি ডুবে যায়। পরে আশপাশের জেলেরা নৌকা নিয়ে এসে আমাদের উদ্ধার করেন।

বর্তমানে মুন্সী এক্সপ্রেস নামক জাহাজের উদ্ধার হওয়া কর্মচারীরা চাঁদপুর পাইলট হাউজে আশ্রয় নিয়েছেন।

জেলে ররহমান হাওলাদার জানান, রাত সোয়া ৮ টার সময় দুধ পট্রি এলাকায় তেলের ট্যাংকারের বাড়ি খেয়ে মালবাহী জাহাজ ডুবে যায়। পরে শ্রমিকদের ডাক চিৎকার শুনে পাড় থেকে ইঞ্জিত চালীত নৌকা নিয়ে ১০ জন শ্রমিককে উদ্ধার করি।

বাংলাদেশ কার্গো ট্রলার বলগেট শ্রমিক ইউনিয়নের চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর সরদার,আমরা শ্রমিক ফেডারেশনের লোকজন সহ ঘটনা জানতে পারে নৌ পুলিসের ওসি সহ উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়। কাউকে নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে।

নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ আবু তাহের জানান, জাহাজ ডুবির ঘটনা শুনে আমরা তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে জেলেদের সহযোগিতায় জাহাজের ১০ জন শ্রমিককে উদ্ধার করে নৌ- ফাড়িতে নিয়ে আসি। এ ঘটনায় কোন নিখোজ নেই। উদ্ধার হওয়া শ্রমিকরা সুস্থ আছে।

চাঁদপুর টাইমস রিপোর্ট, ১৯ জুলাই ২০১৯