Home / চাঁদপুর / চাঁদপুরে টানা বৃষ্টিতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি : ১৬৬ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড
tana bristi
বৃষ্টির ছবি

চাঁদপুরে টানা বৃষ্টিতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি : ১৬৬ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড

চাঁদপুরে গত ২৪ ঘন্টায় ১৬৬ মি.মি.বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আর ৭২ ঘন্টায় ২৩৩ মি.মি.রেকর্ডের বিষয়টি চাঁদপুর আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে এ তথ্য চাঁদপুর টাইমসকে নিশ্চিত করা হয়েছে।

চাঁদপুরে লঞ্চ চলাচর স্বাভাবিক থাকলেও যাত্রী সংখ্যা ছিলো অনেক কম। তবে ঢাকা-বরিশাল রুটে দ্রুতগামী যাত্রীবাহী লঞ্চ গ্রীন লাইন-২ চাঁদপুর মেঘনা মোহনা অতিক্রম করার সময় দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে। এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

শনিবার (২১ অক্টোবার) সাড়ে ১১ টার দিকে চাঁদপুর ত্রীনদী মোহনার অংশে প্রচণ্ড বাতাসে বিকট শব্দে প্রথমে লঞ্চের সামনের অংশের গ্লাস ফেটে চৌচির হয়ে যায়। তার কিছুক্ষণ পরেই লক ভেঙ্গে প্রধান গেটটি খুলে যায়, এতে গেটটি আর বন্ধ করা সম্ভব হয়নি এবং পচ- ঢেউয়ে ভেতরে পানি প্রবেশ করতে থাকে। এ পরিস্থিতি যাত্রীরা চিৎকার দিতে থাকে। পরে অনেকটা জোরপূর্বকভাবে লঞ্চ কর্তৃপক্ষকে বাধ্য করে চাঁদপুর ঘাটে ভিড়ানো হয়।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে আজ শনিবার (২১ অক্টোবর) চাঁদপুরসহ দেশের অধিকাংশ স্থানে অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সে সাথে দেশের বিভিন্ন স্থানে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।

চাঁদপুর আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মরত পর্যবেক্ষক মো.ফরিদ হোসেন চাঁদপুর টাইমসকে জানান, চাঁদপুরে ২৪ ঘন্টায় টানা বৃষ্টিপাতে জনজীবন অনেকটাই বিপর্যস্থ এবং এ পর্যন্ত ১৬৬ মি.মি.বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

রোববার (২২ অক্টোবর) দুপুর থেকে অবস্থার উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের ওই পর্যবেক্ষক ।

এদিকে টানা বৃষ্টিতে চাঁদপুরের নিম্মাঞ্চল বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে তৃতীয়বারের মত জেলার হাজীগঞ্জ, মতলব উত্তর ও দক্ষিণ,ফরিদগঞ্জ ও হাইমচরের বেড়িবাঁধের ভেতর ও চরাঞ্চলের রোপা আমনের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

চাঁদপুর জেলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলার সড়কের বেহালদশায় জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসা ও প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষার্থীর উপস্থিতির হার একবারেই কম ছিল। তবে চলমান কলেজের অনার্স ও মাধ্যমিক স্তরের নির্বাচনি পরীক্ষা যথারীতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে চাঁদপুর টাইমসের আমাদের ফরিদগঞ্জ প্রতিবেদক আতাউর রহমান সোহাগ জানিয়েছেন, বঙ্গোপসাগরের সৃষ্টি হওয়া নিম্নচাপের প্রভাবে শুক্র ও শনিবার এ দু’দিনের টানা বৃষ্টিপাত ও হাল্কা থেকে মাঝারি বাতাসে ফরিদগঞ্জ ও আশ-পাশের এলাকায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বৈরি আবহাওয়ায় দু’দিনে একবারেও সূর্যের দেখা মেলেনি।

শনিবার (২১অক্টোবর) সকাল থেকে উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় বিপর্যয় দেখা দেয় ।

ফরিদগঞ্জ বাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান,বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ সকল শ্রেণি পেশার জনগণের মাঝে। বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি ছিলো কম।

এছাড়া বৈরি আবহাওয়ার কারণে আজ শনিবার বিকালে ফরিদগঞ্জ এ আর পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিতব্য ফরিদগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে আয়োজিত মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্টর ফাইনাল খেলা স্থগিত করা হয়েছে।

চাঁদপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর,খামার বাড়ির কর্মরত কৃষিবিদ মো.আবদুল মান্নান চাঁদপুর টাইমসকে (২১ অক্টোবর) বিকালে জানান, টানা বৃষ্টিপাতে রবি মৌসুমের যে সকল স্থানে শাক-সবজি ও রোপা আমনের আবাদ করা হয়েছে তাতে আংশিক ক্ষয়-ক্ষতির আশংকা রয়েছে। তবে পরিপূর্ণ ক্ষয়-ক্ষতির পরিসংখ্যান তারা এখনও পাননি বলে জানান।

চাঁদপুরে এবছর ২৪ হাজার ৯শ’ ৯০ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধানের চাষাবাদ করা হয়েছে। উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা হলো হেক্টর প্রতি ২ দশমিক ৭২ মে.টন। টানা বৃষ্টিপাতে উৎপাদনের ওই লক্ষ্যমাত্রা ব্যাহত হতে পারে বলে তিনি জানান।
Bristy beza child care
আবহাওয়া অধিদপ্তরে তথ্যে জানা গেছে, উপকূলীয় উড়িষ্যা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চল ও উড়িষ্যা এলাকায় অবস্থান করছিল।

এটি আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যেতে পারে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ু চাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে এবং গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা তৈরি অব্যাহত রয়েছে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দর সমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

নিম্নচাপের প্রভাবে উপকূলীয় জেলা কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, ভোলা, বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ১-২ ফুট অধিক উচ্চতার বায়ু তাড়িত জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

প্রতিবেদক : আবদুল গনি
: আপডেট, বাংলাদেশ ১:০৩ এএম, ২১ অক্টোবর, ২০১৭ শনিবার
ডিএইচ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মতলবে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দু’শ্রমিক হতাহত

মতলব ...