Home / চাঁদপুর / চাঁদপুর মেডিকেল কলেজে এসে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি
medical-college-porichiti-shova

চাঁদপুর মেডিকেল কলেজে এসে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি

চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ ১ম বর্ষ এম বি বি এস কোর্সের ছাত্র ছাত্রীদের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২ টায় চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গনে (সদর হাসপাতাল) পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি।

তিনি বলেন, চাঁদপুরে মেডিকেল কলেজের দাবি ছিলো শুধু তা নয়, একজন ডাক্তার এমপি হয়ে এটি স্বপ্ন ছিলো। সে জন্যই স্বপ্ন জাগাতে মেডিকেল কলেজের বিষয়ে কাজ করেছি। আমি যখন যেথায় গেছি, তখন অনেকেই বলেছিলো মেডিকেল কলেজ করবেন কিনা। আশা ছেড়ে দিয়েছিলাম। যখন আবার মেডিকেল কলেজ অনুমতি দেওয়া শুরু হলো, তখন নিজেরটা ছাড়েনি। ১০ জানুয়ারি বীরের জাতির যাত্রা শুরু হয়েছিলো। লক্ষকোটি মানুষ প্রিয় নেতাকে কাছে পেয়েছে সেদিন। মহান মুক্তিযদ্ধে ৩০ লাখ মানুষ আত্মদান করেছিলো, ২ লাখ মা বোন ইজ্জত দিয়েছিলো, ১ কোটি মানুষ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলো আর সাড়ে ৩০ কোটি মানুষ দেশে বাস্তুহারা হয়েছিলো।

জাতির পিতা আমাদের সকল কিছুর প্রেরণার উৎসব। জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই, কারন তিনি না হলে চাঁদপুরে মেডিকেল কলেজ হতো না। আমি আবরো ধন্যবাদ জানাই তিনি আমাকে একটি গুরুত্বপর্ণ দায়িত্ব দিয়েছেন। আমি জেলা আওয়ামীলীগসহ প্রত্যেকটি নেতৃবৃন্দ এবং জনসাধারণের কাছে কৃতজ্ঞ। কারণ আপনাদের সহযোগিতায় আমি এই এলাকায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে পেরেছি।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে দীপু মনি বলেন, মেডিকেল কলেজের পড়াশুনা খুবই কষ্টের। তোমরা এখানে পড়াশুনা করে অনেক কিছুই মনে আসবে, কেনো এখানে পড়তে আাসলাম। কিন্তু এখান থেকে তোমরা যখন পাশ করে বের হবে, তখন মনে করবে অনেক কিছুই অর্জন করেছো। সেবা প্রদান করার যে তৃপ্তি তোমরা তখনই বুঝতে, যখন ডাক্তার হয়ে সেবা প্রদান করবে। আমি তোমাদেরকে বলবো ভালো ডাক্তার হওয়া অবশ্যই প্রয়োজন। তার চাইতে বড় প্রয়োজন ভালো মানুষ হওয়া।

ক্লাসের বাইরেও একটি জগত আছে, সেই সম্পর্কেও তোমাদের জানতে হবে। মনটাকে খেলা রাখতে হবে। শেখার কোন শেষ নেই। সারাদিন শিকতে হবে, সারাদিন জানতে হবে। আমরা সবাই সবার জন্য। আমরা ভালো মানুষও হওয়াটে গুরুত্ব দিতে হবে। এটা হলে সবকিছুই সফল ভাবে অর্জন করতে পারবো। জীবনের কোন কিছু রাজনীতির উদ্ধে কিংবা রাজনীতির বাইরে নয়। এখানে রাজনৈতিকমুক্ত মেডিকেল হবে সেটি নয়, এখানে রাজনৈতিক হানাহানিমুক্ত মেডিকেল কলেজ হবে। চাঁদপুর শহর একটি শান্তিপূর্ন শহর। আমাদের সংবিধানের বাইরে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই।

চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. জামান সালেহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার (এসপি), জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, সহ-সভাপতি ডা. জে আর ওয়াদুদ টিপু, জেলা বিএমএ এর সভাপতি ডা. সৈয়দ এম এন হুদা, সাধারণ সম্পাদক ডা. মাহমুদুন নবী মাসুম।

অভিভাবকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম আনোয়ারা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. রিদওয়ানুল হক, চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন লামিয়া নওরিন।

চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের ১ম বর্ষে ভর্তিকৃত এমবিবিএস কোর্সের শিক্ষার্থীদের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হবে। ১ম বর্ষের কোর্সে ৫০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে। চাঁদপুর ২৫০ শয্যার সরকারি জেনারেল হাসপাতালের পূর্ব পাশের ভবনের ৪র্থ তলার এই শিক্ষা কার্যক্রম চালানো হবে।

প্রতিবেদক- শরীফুল ইসলাম
১০ জানুয়ারি, ২০১৯

Leave a Reply