Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Home / চাঁদপুর / কাউকে ভোট ডাকাতি করতে দেয়া হবে না : শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক
manik

কাউকে ভোট ডাকাতি করতে দেয়া হবে না : শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারণা, গণসংযোগ, পথসভা, উঠোন বৈঠক করে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন চাঁদপুর ৩ আসনের বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের মনোনতি ধানের শীষের প্রতীকের প্রার্থী শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক।

বুধবার (১২ ডিসেম্বর) নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার তৃতীয় দিনেও তিনি দিনভর চাঁদপুর সদর ও হাইমচর উপজেলায় ধানের শীষের ভোট চেয়ে অনেকগুলো উঠোন বৈঠক ও পথসভায় অংশ নেন।

এইদিন সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সদর উপজেলার ১০নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের দোকানঘর চৌরাস্তা, ছিডু খাঁর পোল, লক্ষ্মীপুর বাজার, কমলাপুর, মধ্য-রঘুনাথপুর, বেপারী বাজার, পূর্ব রামদাসদী ও কোটরাবাজসহ হাইমচর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে ভোটরসহ দলীয় দলের সিনিয়র নেতাদের কাছ থেকে দোয়া নেন। প্রায় প্রতিটি উঠোন বৈঠক ও পথসভায় দলের নেতাকর্মী-সমর্থক ছাড়াও সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক জনসাধারণের উপস্থিতি দেখা গেছে।

বিভিন্ন উঠোন বৈঠক ও পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক বলেন, ভোট বিহীন অনির্বাচিত আওয়ামী সরকারের দুঃশান আর সৈরশাসনের জবাব দিতে বাংলাদেশের জনগণ মুখিয়ে রয়েছে। গত ১২ বছর দেশের সাধারণ জনগণ কোনো নির্বাচনেই ভোট দিতে পারেনাই। তাদের ভোটের অধিকার কেরে নেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগের শাসনামলে শুধুমাত্র ভোট ডাকাতিই হয়নি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, চিকিৎসাসহ সকল খ্যাতে ডাকাতি আর দুর্নীতি হয়েছে। আগামী সংসদ নির্বাচনে ভোটের মাধ্যমে বাংলার জনগণ অবৈধ এই সরকারকে জবাব দিবে।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ ভেবেছিলো বিএনপিকে এবারও নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে পারলে তারা বিনাভোটে নির্বাচিত হতে পারবে। সেজন্য তারা সকল প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা এই নির্বাচনকে মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনা এবং গণতন্ত্র রক্ষার আন্দোলন হিসেবে নিয়েছি। ফলে এখন আর তাদের ভোট ছাড়া, চেয়ারম্যান, মেম্বার হওয়ারও সুযোগ নেই। আমরা মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে চাই। দেশের হারিয়ে যাওয়া গনতন্ত্র উদ্ধার করতে চাই।

চাঁদপুর-৩ নির্বাচনী আসনে ধানের শীষের ব্যানার পোস্টার লাগাতে বাঁধা দেয়া হচ্ছে এবং বিভিন্ন জায়গায় ব্যনার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে বিএনপি নেতাকর্মীদের এমন ক্ষোভ প্রকাশের বিষয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণকে ভয় পায় তাই তারা নির্বাচনের সুষ্ট পরিবেশ নষ্ট করে দিচ্ছে। যাতে করে সাধারণ ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে না আসতে পারে। আর বিএনপি হলো গণমানুষের দল। তাই আমাদের ব্যানার-পোস্টার না হলেও চলবে। ধানের শীষ প্রতীক সাধারণ মানুষের হৃদয়ে আছে। ভোটের দিন সেটি আমরা প্রমান করবো।

দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের দুঃশাসন থেকে মুক্তি পেতে আমাদের আর ঘরে থাকার সুযোগ নেই। জনগণ যাতে নিরাপদে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ধানের শীষে ভোট দিতে পারে এজন্য দলের নেতাকর্মীদের সজাগ থাকতে হবে। শুধু ভোট দিলেই হবে না, শেষ সময় পর্যন্ত ভোট পাহাড়া দিতে হবে। আর কাউকে ভোট ডাকাতি করতে দেয়া হবে না।

উঠোন বৈঠক ও পথসভায় অনান্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আ. হামিদ মাস্টার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদর থানা বিএনপির সভাপতি দেওয়ান মো. সফিকুজ্জামান, লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হাফেজ বেপারী প্রমুখ।

এসময় উপস্থিতি ছিলেন, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক সেলিমুছ সালাম, এ্যাড. হারুনুর রশীদ, পৌর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল কাদের বেপারী, কোষাধক্ষ্য কাইয়ুম খান, জেলা যুবদলের সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন চান্দু, সাধারন সম্পাদক নুরুল আমিন খান আকাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ বাহার, জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি শাহাজালাল মিশন, লক্ষ্মীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি কামরুল হাসান ভুইয়া, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান খান, সাধারণ সম্পাদক নুরু ভুইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল গফুর বেপারী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি অ্যাড. জাহাঙ্গির খান।

সাংগঠনিক সম্পাদক সোলায়মান ঢালী, সদর থানা স্বেচ্ছাাসেবক দলের যগ্ম আহ্বায়ক খোকন মিজি, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ইমান হোসেন গাজি, সাধারন সম্পাদক ঈসমাইল পাটওয়ারী, সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউর রহমান সোহাগ, যুগ্ম সম্পাদক মনির হোসেন মুন্না, সোহেল রানা, শাকিল আহমেদ, চাঁদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি লুঃফুর রহমান সজিব।

প্রতিবেদক: আশিক বিন রহিম
১২ ডিসেম্বর,২০১৮

শেয়ার করুন

Leave a Reply