Home / চাঁদপুর / চাঁদপুরে স্ত্রী-দু’সন্তানকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

চাঁদপুরে স্ত্রী-দু’সন্তানকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

চাঁদপুরে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যা করে স্বামী আত্মহত্যা করেছে। রোববার(১৬ ডিসেম্বর) দিনগত রাতে সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের দেবপুর গ্রামের বড় হুজরের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন স্ত্রী ফাতেমা বেগম(২৪),মেয়ে মিথিলা(৫) ও ছেলে সিয়াম(১),স্বামী মাঈনউদ্দিন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চাঁদপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা মো. নাসিম উদ্দিন ও রামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আল মামুন পাটওয়ারী।

রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল-মামুন পাটোয়ারী বলেন, ‘মাঈনউদ্দিন চট্টগ্রামে একটি বেকারিতে কাজ করতো। দু’দিন আগে সে বাড়িতে আসে। রোববার সে ছেলেকে নিয়ে পারিবারিক কবরস্থান পরিষ্কার করে এবং তা ভিডিও করে তার প্রবাসী ভাইকে পাঠায়।’

এছাড়া রাতে তার ফেসবুক আইডি থেকে সে স্ট্যাটাস দেয়, ‘আমি মরে যাবো। এর জন্য দায়ী থাকবে আমার শ্বশুর ও শাশুড়ি।’ ওই স্ট্যাটাস থেকে মাঈনউদ্দিনের প্রবাসী ভাই তার মাকে বিষয়টি জানায়।

এরপর প্রথমে সে তার স্ত্রীকে বাড়ির পুকুরে চুবিয়ে হত্যা করে এবং পরে দুই সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। স্ত্রী সন্তানকে হত্যার পর সে নিজে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে সকালে মাঈনউদ্দিন, তার স্ত্রী ও দুই সন্তানের লাশ পাওয়া যায় ।

ঘটনাস্থল থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি-সার্কেল) জাহিদুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে— মাঈনউদ্দিন তার স্ত্রী ও সন্তানদের হত্যার পর নিজে আত্মহত্যা করেছে। মাঈনউদ্দিনের স্ত্রী ফাতেমার লাশ পাওয়া গেছে বাড়ির পাশের পুকুরে।

আর মাঈনউদ্দিনের লাশ পাওয়া গেছে ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায়। এছাড়া তার দুই শিশু সন্তানের লাশও ঘরে পাওয়া গেছে। তাদের শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।’

স্থানীয়দের কেউ কেউ জানায় স্বামী মঈনুদ্দিনের সাথে তার স্ত্রী ফাতেমার পারিবারিক জীবন নিয়ে বহুদিন ধরে কলহ চলছিলো। তবে সচেতন মহল মনে করছে এর পেছনে ভিন্ন কোনো কারনও থাকতে পারে। কারণ এক রাতে ৪জনের অপমৃত্যু বেশ রহস্যজনক।

এদিকে এই ঘটনার খবর পেয়ে ওই এলাকা ও আশপাশের শত শত উৎসুক গ্রামবাসী ঘটনাস্থল বড় হুজুরের বাড়িতে ভিড় করছে।

মাঈনুদ্দিনের সে ভিডিওটি দেখুন-

প্রতিবেদক:আশিক বিন রহিম
১৭ ডিসেম্বর,২০১৮

Leave a Reply