Home / চাঁদপুর / ৩২ বছর ধরে বিশ্বকে পোলিও নির্মূলে কাজ করছে রোটারী
rot arrr

৩২ বছর ধরে বিশ্বকে পোলিও নির্মূলে কাজ করছে রোটারী

রোটারী জেলা-৩২৮২ এর গভর্নর রোটারিয়ান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তৈয়ব চৌধুরী এমপিএইচএফ, বি, পিএইচএস বলেছেন, চাঁদপুর রোটারী ক্লাব ৪৩ বছর ধরে ভিত্তি রচনা করেছেন। আর এই ক্লাবের সিনিয়র সদস্যরা সুযোগ দিচ্ছেন নতুনদের। এতে করে এই ক্লাবে নতুন-নতুন জেনারেশন সৃষ্টি হচ্ছে।

শুক্রবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় তিনি চাঁদপুর রোটারী ক্লাব পরিদর্শনকালে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, গর্ভনরের ভিজিটের মধ্যে এক্সক্লুসিভ ও ক্লাব এসেম্বলী থাকে। এর মধ্যে যদি ক্লাবের সব কিছু পরিপূর্ণ পেয়ে থাকি তাহলে চাঁদপুর রোটারী ক্লাব শতভাগ কাজ করেছেন। রোটারীতে নারীদের সম্পৃক্ত করতে হবে। রোটারীর সাথে যারা জড়িত আছি আমাদের সবাইকে মনে রাখতে হবে সবাই মিলে সেবামূলক কাজ করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের অফিসিয়াল ভিজিট হচ্ছে ৯৫তম ভিজিট। ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই ১৩৮টি ক্লাবের মাধ্যমে ভিজিট শেষ করতে যাচ্ছি। ১৯৮৮ সালে চট্টগ্রাম ডাউনটাউন রোটার‌্যাক্ট ক্লাবের মাধ্যমে রোটারী আন্দোলনে যুক্ত হই। রোটারীর যুব সংগঠন রোটার‌্যাক্টের জেলা প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। চাঁদপুর রোটারী ক্লাবকে ধন্যবাদ জানাই যে আজ ক্লাবের সদস্যদের পরিচয়ের সময়ে দেখতে পেলাম যে নতুন সদস্যদের মধ্যে অনেকেই সাবেক রোটার‌্যাক্টর।

তিনি বলেন, যাদের মধ্যে চিত্ত-বিত্ত আছে তারাই রোটারীর সাথে জড়িত হচ্ছেন। সারা বিশ্বে রোটারীর মাধ্যমে পোলিওমুক্ত করা হচ্ছে। ১৯৮৫ সাল থেকে রোটারী পোলিও’র জন্য কাজ করে। ৩২ বছর ধরে এ কাজটি করছে রোটারী। আমরা আশা করছি ২০১৮ সালে মধ্যে সারাবিশ্ব থেকে পোলিও নির্মূল করা হবে। পোলিও নির্মূলের জন্য সব রোটারিয়ানদের এগিয়ে আসতে হবে। যে যার পজিশনে আছি আমরা যদি সেই পজিশন থেকে কাজ করি তাহলে আমরা আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবো।

রোটারী গভর্নরের এক্সক্লুসিভ ও অ্যাসেম্বলী শেষেই চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের নিয়মিক ২২৭০তম সভার কার্যক্রম শুরু করেন ক্লাব সভাপতি রোটারিয়ান দেওয়ান আরশাদ আলী।

রোটারী ডিস্ট্রিক্ট লেফটেনেন্ট গভর্নর রোটারিয়ান কাজী শাহাদাতের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন গভর্নর রোটারিয়ান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তৈয়ব চৌধুরী, ডিস্ট্রিক্ট ফার্স্ট লেডী ফারজানা হক রূপসা, এডিশনাল সেক্রেটারী রোটারিয়ান মো. আজিজুল হক, গভর্নরের বিশেষ এইড রোটারিয়ান মো. মেছকাতুল আমিন সোহেল, ডেপুটি গভর্নর রোটারিয়ান শেখ মনির হোসেন বাবুল, চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের সাবেক সভাপতি রোটারিয়ান ডা. এএসএম শহিদ উল্যাহ প্রমুখ।

ক্লাবের সেক্রেটারী রোটারিয়ান শাহেদুল হক মোর্শেদের পরিচালনায় অনুষ্ঠান শেষে অতিথিদের ক্লাবের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেয়া হয়। ক্লাব অ্যাসেম্বলী ও গভর্নর পরিদর্শনের শুরুতে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন ক্লাবের সহ-সভাপতি রোটারিয়ান নাসির উদ্দিন খান। প্রত্যয় পাঠ করেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি রোটারিয়ান প্রফেসর গোলাম মোস্তফা।

চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের নতুন সদস্য চাঁদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ওচমান গণি পাটওয়ারী, চাঁদপুর পৌরসভার কাউন্সিলর নাছির উদ্দিন চোকদার, অ্যাড. জহির উদ্দিন বাবার এবং ফারজানা আক্তার মুক্তাকে রোটারী পিন পরিয়ে দেন গভর্নর রোটারিয়ান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তৈয়ব চৌধুরী ও ডিস্ট্রিক্ট ফার্স্ট লেডী ফারজানা হক রূপসা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি রোটারিয়ান আলহাজ জাহাঙ্গীর আখন্দ সেলিম ও রোটারিয়ান সুভাষ চন্দ্র রায়সহ চাঁদপুর সেন্ট্রাল রোটারী ক্লাব, চাঁদপুর রোটার‌্যাক্ট ক্লাব এবং চাঁদপুর রুপসী রোটার‌্যাক্ট ক্লাবের সদস্যরা।

এছাড়া রোটারী গর্ভনর শুক্রবার সকাল ৯টায় চাঁদপুর সেন্ট্রাল রোটারী ক্লাব পরিদর্শন করেন। সকালে গভর্নর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তৈয়ব চৌধুরী বালিয়া ইউনিয়নস্থ ইচলী গুচ্ছগ্রাম আরসিসিতে (রোটারী ভিলেজ ক্রপস) স্যানিটেশন এবং বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। পরে শহরের নিউ মার্কেটস্থ রোটারী সেন্টারে অফিসিয়াল ক্লাব ভিজিট করেন তিনি।

এছাড়া চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের প্রকল্প শহরের কুলিবাগান এলাকায় অসহায়দের জন্য নির্মিত ৬টি পাকা টয়লেট উন্মুক্তকরণ এবং একই স্থানে বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন গভর্নর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তৈয়ব চৌধুরী।

করেসপন্ডেন্ট
: আপডেট, বাংলাদেশ ৬:০৩ এএম, ২১ অক্টোবর, ২০১৭ শনিবার
ডিএইচ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

এসি যেভাবে আপনার শরীরের ক্ষতি করছে!

ঘরের ...