Home / রাজনীতি / আবারো অঝোরে কাঁদলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
ফাইল ছবি

আবারো অঝোরে কাঁদলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর পুলিশি নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে অঝোরে কাঁদলেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার (০৮ জুলাই) ইউনিয়ন বিএনপি আয়োজিত সদস্য সংগ্রহ অনুষ্ঠানে নেতাকর্মীদের উপর নির্যাতনের কথা বলেতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন ফখরুল। মহাসচিবের কান্নায় অনুষ্ঠানস্থলে এসময় আবেগঘন পরিবেশ তৈরী হয়।

এসময় কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, খুব কষ্টের মধ্যে আছেন আপনারা। অনেক কষ্ট, অনেক যন্ত্রণা, ব্যথা-বেদনা। এর মধ্যে আমরা আমাদের অনেক বন্ধুকেও হারিয়ে ফেলেছি। তারপরও আপনারা এতটুকু নড়েননি। যে বিশ্বাস যে আদর্শকে নিয়ে আপনারা দাঁড়িয়ে আছেন সেই বিশ্বাস এবং আদর্শকে শক্তি করে নিয়ে এই চরম দুর্দশার মধ্যে দুর্দিনের মধ্যেও আপনারা বুকে সাহস নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। এখনও এই কষ্টের শেষ হয়নি। এখনও অবৈধ সরকারের পেটোয়া বাহিনী পুলিশ যখন-তখন এসে আপনাদের বাড়িঘরে হামলা চালাচ্ছে। গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

রায়পুরের বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মহাসচিব বলেন, ‘এখনো এই কষ্টের শেষ হয়নি। এখনো এই দখলদার সরকারের, যাদের কোনো বৈধতা নেই সরকারে থাকার, যারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি তাদের পেটোয়া বাহিনী পুলিশ তারা যখন-তখন এসে আপনাদের বাড়িঘরে হামলা করে, গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।’

এলাকার বিএনপি নেতাকর্মীদের অনেককেই প্রতি সপ্তাহে বিভিন্ন মামলার হাজিরা দিতে হয় উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘খুব কষ্টের মধ্যে আছেন আপনারা। এই কষ্টের মধ্যেও আমি যখন এসেছিলাম তখনো আপনাদের মুখে আমি সাহস দেখেছি। আপনাদের কোনো ভয়ের মধ্যে দেখিনি আমি।’

‘অনেক কষ্ট, অনেক যন্ত্রণা, ব্যথা-বেদনা। এর মধ্যে আমরা আমাদের অনেক বন্ধুকেও হারিয়ে ফেলেছি। তারপরও আপনারা এতটুকু নড়েননি। যে বিশ্বাস যে আদর্শকে নিয়ে আপনারা দাঁড়িয়ে আছেন সেই বিশ্বাস এবং আদর্শকে শক্তি করে নিয়ে এই চরম দুর্দশার মধ্যে দুর্দিনের মধ্যেও আপনারা বুকে সাহস নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন’ যোগ করেন বিএনপির মহাসচিব।

স্থানীয় সংসদ সদস্য, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী এবং প্রশাসনের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমাদের ঠাকুরগাঁও বড় সাধারণ জায়গা। সরল মানুষ। এই মানুষগুলোর ওপর অত্যাচার করবেন না। এই মানুষগুলোকে কষ্ট দেবেন না। মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে তাঁদের হয়রানি করবেন না। রাজনৈতিক সমস্যা রাজনৈতিকভাবেই মোকাবিলা করতে হবে। আমরা আমাদের কথা বলব, আপনারা আপনাদের কথা বলবেন। জনগণ যাঁকে গ্রহণ করবে, ভবিষ্যতে ভোট দেবে তাঁরাই সরকার চালাবে। আসুন অতীতের যে পরিবেশ ঠাকুরগাঁওয়ে ছিল সেই পরিবেশ আমরা সৃষ্টি করি।’

আওয়ামী লীগকে মিথ্যাবাদী আখ্যা নিয়ে নিজের বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, সুন্দরবনে আমরা কয়লাভিত্তিক কোনো বিদ্যুৎ প্রকল্প চাই না। এই সরকার মিথ্যাবাদী, জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করে। ইউনেস্কো নাকি তাদের আপত্তি তুলে নিয়েছে। মিথ্যা কথা গতকালই তাদের পুরো রিপোর্ট আমি পড়েছি। ইউনেস্কো সরকারকে আশ্বাস দিয়েছে যে, এর উপর আরও পরীক্ষা নিরীক্ষা চালানো হবে। তারপরে এই প্রকল্প নিয়ে আগাবে তারা।

নিউজ ডেস্ক
: আপডেট, বাংলাদেশ সময় ৭: ০০ পিএম, ৮ জুলাই ২০১৭, শনিবার
ডিএইচ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

Nurjahan Mukta mp

অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধার পাশে দাঁড়ালেন সাংসদ অ্যাড. নুরজাহান মুক্তা

সামাজিক ...