Home / উপজেলা সংবাদ / ফরিদগঞ্জ / ফরিদগঞ্জ মাত্রাতিরিক্ত সিএনজি ভাড়ায় বিপাকে ঈদযাত্রীরা
cngs-statioN..........
সিএনজি স্কুটার ফাইল ছবি

ফরিদগঞ্জ মাত্রাতিরিক্ত সিএনজি ভাড়ায় বিপাকে ঈদযাত্রীরা

ঈদকে সামনে রেখে ঘরমুখো যাত্রীদের ভীড়। এ সুযোগে বিশেষ রাতে কিংবা ভোর রাতে চাঁদপুর- ফরিদগঞ্জ সড়কে চলাচল কারী ৩ জেলার যাত্রীদেরকে একরকম জিম্মি করে সিএনজি অটোরিকসার অসাধু চালকরা যাত্রী ভাড়া দ্বিগুন কিংবা তিনগুন আদায় করছে।

এতে করে অল্প আয়ের মানুষজন বিপাকে পড়ছেন।

তবে এবার জেলা প্রশাসন চাঁদপুর লঞ্চ ঘাট থেকে ফরিদগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত সর্ব্বোচ্চ ১০০ টাকা এবং রায়পুর বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত সর্ব্বোচ ১৫০ টাকা নির্ধারন করা হলেও অসাধু সিএনজি চালকদের অধিকাংশরাই তা মানছে না।

অতিরিক্ত ভাড়া আদায় থেকে পরিত্রান পেতে অন্তত আজ থেকে আগামী ১৫দিন সরকারি ভাবে দিনে রাতে ভ্রাম্যমান আদালত বসানো ছাড়া কোন ক্রমে সিএনজি অটোরিকসার অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আর কোন বিকল্প পথ নেই বলে ভুক্তভোগী যাত্রীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিশেষ করে ঢাকা থেকে নদী পথে লঞ্চে করে যাতায়াত চাঁদপুর হয়ে নিরাপদ ও আরামদায়ক হওয়ার সুবাদে চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর ও নোয়াখালী এই তিন জেলা মানুষের চলাচল নৌ-পথে বেশি হয়।

এ সুবিধা হিসেবে তিন জেলার লোকজন ঢাকা থেকে লঞ্চে দিনে ও রাতে রওনা হন বাড়ির উদ্দেশ্য । লঞ্চের ডেকে বসে ঢাকা থেকে চাঁদপুরে নূন্যতম ১০০ টাকায় ভাড়ায় চাঁদপুর লঞ্চ ঘাটে পৌছার পর বাকী পথ যেতে হয় সিএনজি অটোরিকসায়।

ঢাকা থেকে নৌপথে প্রায় ৬০ কিঃমিঃ দুরুত্ব পাড়ি দিতে লঞ্চে ১০০ টাকায় চাঁদপুর আসতে পারে। কিন্তু চাঁদপুর লঞ্চ ঘাট থেকে ফরিদগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত প্রায় ২০ কিঃমিঃ পথ পাড়ি দিতে সিএনজি অটোরিকসার পূর্ব নির্ধারিত ভাড়া ৫০ টাকার স্থুলে ১০০ টাকা থেকে ২০০ কিংবা ৩০০ টাকা পর্যন্ত আদায়ের অভিযোগ রয়েছে।

এতে করে সাধারন যাত্রীরা তাদের বাড়ি পৌছতে অতিরিক্ত ভাড়া দিতে গিয়ে বিশেষ করে অল্প আয়ের মানুষেরা নানা দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায় প্রতিটি সিএনজি অটোরিকসা থেকে একাধিক শ্রমিক সংগঠন মাসিক চাঁদা, ট্রাফিক পুলিশের চাঁদা দিতে হচ্ছে। সিএনজি চালকরা অতিরিক্ত ভাড়া আদায়কালে যাত্রীদের কাছে এমনটাই দাবি করছেন।

এ নিয়ে সিএনজি অটোরিকসার কয়জন চালক তাদের খোড়া যুক্তি দেখিয়ে জানায়, ঈদের সময় যাত্রী চলাচল বেশি থাকে। তাদেরও পরিবার-পরিজন নিয়ে ঈদ করতে হয়। তারা ঈদ বোনাস হিসেবে যাত্রীদের কাছ থেকে কিছুটা বেশি ভাড়া আদায় করেন।

এদিকে চাঁদপুর পুলিশ সুপার জিহাদুল কবিরের নির্দেশে ফরিদগঞ্জে সকল যানবাহন থেকে সকল প্রকার চাঁদা আদায়ের নির্দেশ পেয়ে তাৎক্ষনিক ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রকিব উক্ত চাঁদা আদায় বন্ধ করতে বাধ্য করেন।

এ নিয়ে ফরিদগঞ্জের ইউএনও আলী আফরোজ চাঁদপুর টাইমসকে বলেন, শুধু মাত্র ঈদের সময় কয়দিন চাঁদপুর লঞ্চ ঘাট থেকে ফরিদগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১০০ টাকা ভাড়া আদায়ের জন্য সিএনজি অটোরিকসার মালিক ও চালকদের সাথে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে। শুধু তাই নয়, যাত্রীদেরকে জিম্মী করে যাতে করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে না পারে সে জন্য জনস্বার্থে সরকারি প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রতিবেদক- শিমূল হাছান
৪ জুন ২০১৯