Home / উপজেলা সংবাদ / কচুয়া / কচুয়ায় ধানের শীষ প্রার্থীর গাড়িবহরে হামলা

কচুয়ায় ধানের শীষ প্রার্থীর গাড়িবহরে হামলা

চাঁদপুর-১ (কচুয়া) আসনে ধানের শীষ প্রার্থী মো. মোশাররফ হোসেন মিয়াজীর নির্বাচনী প্রচারণার গাড়িবহরে হামলা ও ভাঙচুর করেছে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। হামলায় প্রার্থীসহ অন্তত ১০ জন নেতাকর্মী আহত হন।

বুধবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে কচুয়ায় সাচার দক্ষিণ বাজারে এই হামলা ও ভাঙচুরের এ ঘটনা ঘটে।
হামলাকারীরা ঐ সময় মোশাররফ হোসেনের বহরের পাঁচটি গাড়ি ভাঙচুর করে বলে দাবি বিএনপি নেতাদের।

মোশাররফ হোসেনের প্রচারণায় কচুয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. হুমায়ুন কবির প্রধান, বিএনপি নেতা মো. এমদাদুল হক মিয়াজী, মো. শাহজাহান মজুমদার, উপজেলা যুবদলের সভাপতি মো. মহিউদ্দিন মজুমদারসহ কয়েক শত নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

জানতে চাইলে উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. হুমায়ুন কবির প্রধান বলেন, ‘মোশাররফ হোসেন দলীয় প্রতীক পাওয়ায় বুধবার সকালে ঢাকা থেকে বিশাল গাড়িবহর নিয়ে প্রথম বারের মতো নির্বাচনী এলাকায় পৌঁছান। তিনি নিজ গ্রাম বারৈয়ারায় তার প্রয়াত বাবা ও গ্রামবাসীর কবর জিয়ারত শেষে স্থানীয় বারৈয়ারা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বক্তব্য দিয়েছিলেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘তারপর উজানী মাদ্রাসার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়ে সাচার দক্ষিণ বাজারে পৌঁছলে স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা তাদের গাড়িবহরে হামলা-ভাঙচুর করে। পরে ক্ষতমাসীনদের তোপের মুখে চাঙপুর শিমুলতলীর মোড় থেকে নিজ বাড়িতে ফেরত চলে যান মোশাররফ হোসেন।’

এছাড়া বুধবার কচুয়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মকবুল হোসেন মিয়াজীকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কচুয়া সাচার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) মো. মোবারক হোসেন। বিএনপি নেতা গ্রেফতারের এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মকবুল হোসেনকে অবিলম্বে মুক্তির দাবি করেছেন ধানের শীষের প্রার্থী মোশাররফ হোসেন।

প্রসঙ্গত, এ আসনটির বর্তমান সাংসদ সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহিউদ্দিন খান আলমগীর। তিনি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী। এতে প্রাথমিক তালিকায় বিএনপির প্রার্থী ছিলো সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এহছানুল হক মিলন। তিনি বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। তার স্থলে মালয়েশিয়া প্রবাসী বিএনপি নেতা মোশাররফ হোসেনকে চূড়ান্তভাবে ধানের শীষ প্রতীক দেয় ঐক্যফ্রন্ট।

কচুয়া করেসপন্ডেট
১২ ডিসেম্বর,২০১৮

Leave a Reply