Home / উপজেলা সংবাদ / চাঁদপুর সদর / ‌‌’চাঁদপুরের প্রাচীন মসজিদকে ঘিরে পর্যটন এলাকা করার পরিকল্পনা রয়েছে’

‌‌’চাঁদপুরের প্রাচীন মসজিদকে ঘিরে পর্যটন এলাকা করার পরিকল্পনা রয়েছে’

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, চাঁদপুর হাইমচর-৩ আসনের উন্নয়নের রূপকার আলহাজ্ব ডাঃ দীপু মনি এমপি রামপুর ইউনিয়নে ছোট সুন্দর গ্রামে উদ্ধার হওয়া সুলতানি আমলের মসজিদটি পরিদর্শন করেছেন।

তিনি বলেন, ‘এখানে প্রতিদিন বিভিন্ন জায়গা থেকে মসজিদটি এক নজর দেখতে শত শত দর্শনার্থী ভিড় জমান। এই এক গম্বুজ বিশিষ্ট মসজিদটি সত্যিই খুব সুন্দর। আমার এই মসজিদকে ঘিরে একটি পর্যটন এলাকা করারও পরিকল্পনা রয়েছে। যাতে চাঁদপুর তথা রামপুরকে একটি পর্যটন নগরী হিসেবে দেখতে আসতে পর্যটকরা আগ্রহী হয়। সেই সাথে ঐতিহ্যবাহী এই মসজিদে এসে যাতে ধর্মপ্রাণ মুসলমান ভাইয়েরা নামাজ আদায় করতে পারেন এ ব্যপারেও আমরা দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার চেষ্টা করবো।’

এ মসজিদটি প্রায় ৫০০ বছরের পুরানো বলে ধারণা করা হচ্ছে। এরই মধ্যে মসজিদটি সংরক্ষণে প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তর এবং জেলা প্রশাসন থেকে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণের পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে বলে জানা যায়।

মসজিদ পরিদর্শনকালে ডাঃ দীপু মনি এমপি বলেন, ‘আমি বই পড়তে ভালোবাসি। সেই বই পড়তে গিয়েই একদিন দেখি আমার পিতৃস্থান রামপুরের ছোট সুন্দর গ্রামে একটি পুরানো ঐতিহ্যবাহী মসজিদ অবস্থিত হওয়ার কথা লেখা আছে। পরে আমি মসজিদটির ব্যাপারে খোঁজ খবর নিতে থাকি এবং স্থানীয় চেয়ারম্যানকে মসজিদটির ব্যাপারে অবহিত করি। পরে চেয়ারম্যান মসজিদটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘মসজিদটির ব্যাপারে বিভিন্ন পত্র পত্রিকাসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হলে আমি জেলা প্রশাসনকে এটি সংরক্ষণের জন্য পদক্ষেপ নিতে বললে ওনারা এসে সরজমিনে মসজিদটি দেখে গেছেন। জেলা প্রশাসনের পর প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের পরিচালক রাখি রায়ের নেতৃত্বেও একটি টিম এসে মসজিদের চারপাশ মেপে ও বিভিন্নভাবে পরীক্ষা নীরিক্ষা করে গেছেন। তারা আমাকে জানিয়েছেন যে এটা প্রায় ৫০০ বছর আগের সুলতানি আমলের মসজিদ বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছেন।’

এসময় ৫নং রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আল মামুন পাটওয়ারী সাংবাদিকদের বলেন,ডাঃ দিপু মনি এমপির নির্দেশেই আমি এলাকাবাসী সকলকে নিয়ে এই মসজিদটি পরিষ্কার করার উদ্যোগ গ্রহণ করি। এই প্রাচীন মসজিদ আমাদের রামপুরকে পত্র পত্রিকার মাধ্যমে সারাদেশে সুনাম বয়ে আনছে বলে আমি সাংবাদিক ভাইদের ধন্যবাদ জানাই। আমাদের জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ইতিমধ্যেই এই মসজিদে একটি স্টিলের খুঁটি সহ সোলার লাইট মসজিদের সামনে স্থাপন করি। তাদের নির্দেশনা মতেই আমরা এই জাতীয় সম্পদকে রক্ষা ও সুন্দর্যবর্ধনে পরবর্তী কাজ করবো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ৫ নং রামপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ মাহবুবুর রহমান পাটওয়ারী, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা আবু বকর তালুকদার, আফু মিয়া তালুকদার, ইব্রাহীম হোসেন বাচ্চু মিয়াজী, সভাপতি মোস্তফা কামাল, সহ-সভাপতি সৌরভ হোসেন পাটোয়ারী, উত্তম রায়, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক শাহাদাত হোসেন জাকির পাটোয়ারী, উপজেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ও ইউপি সদস্য আনোয়ারা বেগম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ৭ নং ওয়ার্ড কেন্দ্র কমিটির সদস্য মোঃ ফজলুল হক সহ সকল ইউপি সদস্য এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ৯ ওয়ার্ডের যুবলীগ, ছাত্রলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

এ সময় তারা এলাকাবাসীর পক্ষে ডাঃ দীপু মনি এমপির কাছে মসজিদটি সংরক্ষণ ও সুন্দর্যবর্ধনের যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য জোর দাবি জানায়। উল্লেখ্য গত সপ্তাহে জঙ্গল পরিষ্কার করে সুলতানী আমলের এই মসজিদটি পুরো দমে বের করে আনা হয়।

প্রতিবেদক:মাজহারুল ইসলাম অনিক

Leave a Reply