Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Home / চাঁদপুর / চাঁদপুরের বিগত সব এমপিদের চেয়েও বেশি কাজ করেছি : জনসমুদ্রে দীপু মনি
dipu-moni-vhason..

চাঁদপুরের বিগত সব এমপিদের চেয়েও বেশি কাজ করেছি : জনসমুদ্রে দীপু মনি

চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনে নৌকার প্রার্থী আলহাজ্ব ডা. দীপু মনি এমপি বলেছেন, বিগত ৩০ বছরে যেসব এমপিরা ছিলো তাদের চেয়ে বেশি কাজ করতে পেরেছি। চাঁদপুর বাসীর স্বপ্ন ছিলো মেডিকেল কলেজ। সে মেডিকেল কলেজের কার্যক্রমও এরইমধ্যে শুরু হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকেল ৩টায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে চাঁদপুর হাসান আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্যে করে দীপু মনি বলেন, গত ১০ বছরে এই চাঁদপুর ও হাইমচরের মানুষ যেভাবে আমাকে সহযোগিতা ও সমর্থন দিয়েছে তাদের সেবা করার। আমিও সর্বদা চেষ্টা করেছি আপনাদের সেবা করার। চাঁদপুরের মানুষের যে দীর্ঘ দিনের প্রাণের দাবি ছিলো নদী ভাঙ্গন সে কাজটিও আমরা আল্লাহর অশেষ রহমতে করতে পেরেছি। এছাড়াও আমি আপনাদের যে ওয়াদা দিয়েছিলাম তার থেকেও বেশী কাজ করেছি।

সাবেক এ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ বিজয়ের মাসে কোন ভাবে বিএনপি জামাত আমাদেরকে পরাজিত করতে পারবে না। আমরা অবশ্যই এই বিজয়ের মাসে আরো একটি বিজয় অর্জন করবো। আমরা কোন বুলেট বোমাকে ভয় করিনা। সকল অপশক্তিকে মোকাবেলা করে আমরা এগিয়ে যাবোই যাবো। ৩০ তারিখে আমাদের নেতাকর্মীদের রেজাল্ট নিয়ে বাড়ি ফিরতে হবে।

ডা. দীপু মনি বলেন, আমি আপনাদের জন্য কাজ করতে চাই, মানুষের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই, ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আবারও নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে চাঁদপুরেরর উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে সহযোগীতা করুন। আপনারা আমাকে ভোট দিয়েছেন বলে আমি এমপি হয়েছি, চাঁদপুরে উন্নয়ন করতে চেষ্ঠা করেছি, আপনাদের ভোটের মর্যাদা রক্ষা করেছি। চাঁদপুরের ব্যাপক হারে স্কুল কলেজ মাদরাসা নির্মাণ করেছি। এ সরকারের আমলে যা উন্নয়ন হয়েছে গত ৪০ বছরে তা হয়নি।

তিনি বলেন, চাঁদপুরে আধুনিক নদী বন্দরের ব্যবস্থা করা হবে, চাঁদপুরে মেডিকেল কলেজ করা হয়েছে, ঘরে ঘরে বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ছাত্র ছাত্রীদের উপবৃত্তির টাকা দেওয়া হচ্ছে। চাঁদপুরের দীর্ঘদিনের নদী ভাঙ্গন রক্ষা করা হয়েছে। আমি ওয়াদা দিয়ে ওয়াদা রেখেছি। যারা ওয়াদা দিয়ে ওয়াদা রক্ষা করেনা তাদেরকে ভোট দিয়ে উন্নয়নের আসা করতে পারবেন না।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির নেত্রী এতিমের টাকা আত্মসাৎ করেছে, তাদেরকে ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। ভোট একটি মূল্যবান জিনিস, যে দেশের উন্নয়ন করেছে, তাকে আপনারা ভোট দিবেন। দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ধরে রাখতে হলে আবারো নৌকায় ভোট দিন। আপনারা নৌকার সঙ্গে থাকুন, নৌকা স্বাধীনতার প্রতীক, ভাষার প্রতীক ও মুক্তিযুদ্ধার প্রতীক।

এমপি বলেন, আগের এমপিদেরকে এত কাজ করতে দেখেছেন, নিশ্চয় না। তাহলে ওয়াদা ভঙ্গকারীকে ভোট দিবেন, নাকি ওয়াদা যিনি রেখেছেন তাকে ভোট দিবেন। আমি যা ওয়াদা দিয়েছি, তা রক্ষাও করেছি। আমি দীপু মনি সকল ওয়াদা পালন আপনাদের সুখে দুঃখে আপনারদের পাশে ছিলাম। আপনার নৌকায় ভোট দিলে আগামীতেও আপনাদের সেবা করার সুযোগ পাবো।

তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনা সরকার দেশের জনগণের জীবনমান উন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আপনারা নৌকায় ভোট দিন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন সময়ের কথা উল্লেখ করে বলেন, আপনার ২০০৮ সালে ভোট দিয়েছিলেন বলে আমি এমপি হয়েছিলাম, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বানিয়েছিল। সে সময় সৌদি আরব ও মালয়েশিয়াতে লক্ষ লক্ষ অবৈধ বাংলাদেশীদের বৈধ করনে কাজ করেছি। বাংলাদেশর আয়তনের সমান বিশাল সমুদ্র অঞ্চল জয় করেছিলাম।

ভোট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আপনার কি ২০১৪ সালের আগুন সন্ত্রীদের ভোট দিবেন, নাকি উন্নয়নের ধারক ও বাহক শেখ হাসিনার নৌকায় ভোট দিবেন। নিশ্চয় আপনারা অগ্রগতি, গণতন্ত্র, বেকারত্ব দূরীকরণ, সন্ত্রাসমুক্ত, মাদকমুক্ত সমাজ, অথনৈতীক মুক্তি চান, তাহলে নৌকায় ভোট ছাড়া বিকল্প নেই।

তিনি বেগম জিয়া প্রসঙ্গে বলেন, বিএনপির লোকজন বলেন এবার ১টি ভোট দিলে আমাদের মা খালেদা জিয়া মুক্ত হবে। এতিমের টাকা আত্মসাতের কারনে তিনি আজ কারাগারে আছেন। আমাদের ধর্মের বিধিনিষেধ ও দেশের প্রচলিত আইনের বিধি অমান্য করেছেন বলেই তিনি জেল খাটছেন। ওনাকে শেখ হাসিনা জেলে পাঠায় নাই আগের সরকারের আমলের মামলায় ওনি জেল খাটছেন।

চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযুদ্ধা আলহাজ্ব আবু নঈম পাটওয়ারী দুলালের সভাপতিত্বে ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারীর।

শাহির হোসেন পাটওয়ারী ও যুব ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আলম মিল্টনের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সূজিত রায় নন্দী, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ।

এছাড়াও আরো বক্তব্যে রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নূরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রাধা গৌবিন্ধ ঘোষ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী এরশাদ মিয়াজী, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান বাবুল, হাইমচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতালেব জমাদার, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক অধ্যাপিকা মাসুদা নূর খান, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবি পরিষদের সভাপতি অ্যাড.আহছান হাবিব, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মিজানুর রহমান কালু ভূইয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, জেলা যুব মহিলালীগের সভাপতি কাউন্সিলর ফরিদা ইলিয়াছ, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহ্বয়ক এস এম জয়নাল আবেদীন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতাউর রহমান পারভেজ প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে ডা.দীপু মনির নেতৃত্বে একটি মিছিল হাসান আলী মাঠ থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে ডা.দীপু মনির বাসভবনের সামনে এসে শেষ হয়।

এসময় চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের অসংখ্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিবেদক- সিনিয়র স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮

Leave a Reply