Home / চাঁদপুর / চাঁদপুরের অগ্নিকাণ্ডে যমুনা ওয়েল এজেন্সি মালিকেরও মৃত্যু
অগ্নিকাণ্ডের ফাইল ছবি

চাঁদপুরের অগ্নিকাণ্ডে যমুনা ওয়েল এজেন্সি মালিকেরও মৃত্যু

চাঁদপুর শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে জ্বালানি তেলের গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় অবশেষে যমুনা অয়েল এজেন্সির মালিক মিজানুর রহমান পাটওয়ারী (৪৫) মারা গেছেন। তিনি ৯ দিন ধরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসায় থেকে ৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ভোর রাতে মারা যান।

তার শ্যালক কবির চৌধুরীর বিষয়টি চাঁদপুর টাইমসকে নিশ্চিত করেছেন।

এ ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে এর আগে পর্যায়ক্রমে চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যায় তার বড় ছেলে রায়হান পাটওয়ারী (২৩),লরির হেলপার নুর মোহাম্মদ (২১) ও তার দোকানের কর্মচারী মাসুদ (২৮)।

তবে স্থানীয় এরাকাবাসি ও প্রত্যক্ষদর্শীদের ক’জন জানায়, ‘মিজানুর রহমান অগ্নিকাণ্ডে যতোটা অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন অন্যান্যদের তুলনামূলক হারে তার অবস্থা অনেক ভালো ছিলো। তাই স্থানীয়রা মৃত্যুর কারণ হিসেবে অনেকে মনে করছেন ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় তার ছেলে ও কর্মচারীর মৃত্যু, শেষ সম্বলটুকো চলে যাওয়া এবং তার বিরুদ্ধে মামলা, সব মিলিয়ে হয়তো তিনি মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।’

তার স্বজনদের কেউই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ এখনো নিশ্চিত করেননি।

অনাকাঙ্খিত এমন একটি অগ্নিকান্ডের ঘটনায় একটি পরিবার এভাবে শেষ হতে দেখে শহরবাসি অনেকেই আফসোস করছেন এবং গভীর শোক প্রকাশ করছেন।

শুক্রবার রাতে তার লাশ ঢাকা থেকে ফরিদঞ্জ লোহাগড়া গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসার কথা রয়েছে এবং রাত ৮ টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থনে লাশ দাফন করা হবে।

প্রসঙ্গত, মিজানুর রহমান পাটৗয়ারী প্রায় বছর ধরে বঙ্গবন্ধু সড়কে বাসা ভাড়া থেকে ব্যাবসা করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি তার ২ ছেলের মধ্যে ১ ছেলে ১ মেয়ে ও স্ত্রী রেখে যান।

এ সংক্রান্ত আগের প্রতিবেদন- চাঁদপুর বঙ্গবন্ধু সড়কে স্মরণকালের ভয়াবহ আগুন (ভিডিওসহ)

: আপডেট, বাংলাদেশ সময় ৫:৪০ পিএম, ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬, শুক্রবার
ডিএইচ

About The Author

প্রতিবেদক- কবির হোসেন মিজি

Leave a Reply