Home / চাঁদপুর / ‘২০১৮ সালের আগে চাঁদপুরের প্রতি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া হবে’

‘২০১৮ সালের আগে চাঁদপুরের প্রতি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া হবে’

সোমবার (৯ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০ টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রার মাধ্যমে উন্নয়ন মেলার শুভ সূচনা হয়েছে।

মেলার উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি বলেন, ২০১৮ সালের আগে চাঁদপুরের প্রতি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া হবে। তখন আর চাঁদপুরে লোডশেডিং থাকবে না। আসুন সবাই মিলে একটি সুন্দর চাঁদপুর গড়ে তুলি।’

‘৭১ সালে বহু ত্যাগ-তিতীক্ষা পর সসস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। কিন্তু তখন সাড়ে সাত কোটি বাঙ্গালী তাদের বিজয়ের স্বাদ উপভোগ করতে পারেনি। কারণ সে সময় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন পাকিস্তানের কারাগারে। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রর্ত্যাবর্তন দিবসকে মাথায় রেখেই উন্নয়ন মেলার আয়োজন।‘‘উন্নয়নের গণতন্ত্র শেখ হাসিনার মূল মন্ত্র” এ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে চাঁদপুরে শুরু হয়েছে ৩ দিন ব্যাপি উন্নয়ন মেলা।

‘১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত এ দেশ স্বাধীনতার মূল ¯্রােতে ফিরে এসেছি। ২০১১ সালে বর্তমান সরকার নারী উন্নয়ন নীতি মালা প্রনয়ন করেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়ন আর গণতন্ত্র সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে।’

সাবেক এ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, ‘সারা বিশ্বের কাছে এদেশের স্বীকৃতি আমরা আদায় করেছি। আমাদের উন্নয়ন মেলাটি জেলায় এবার ২ য় বার হচ্ছে। এ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা চলবে ২০৩০ সাল পর্যন্ত। পৃথিবীর যত স্বল্প উন্নয়ন দেশ রয়েছে তার মধ্যে বাংলাদেশ অতি দ্রুত এগিয়ে গেছে শুধুমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ফলে।’

বিদ্যুৎ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিএনপির আমলে ১৬ শ’মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ ছিলো শেখ হাসিনা তাকে ১৪ হাজার মেঘাওয়াট বিদ্যুতে উন্নতি করেছে। আমরা আর পিছিয়ে থাকতে চাইনা। বাংলার ১শ’ বছরের ১৬শ’ মেঘাওয়াট আর শেখ হাসিনা ৮ বছরে ১৫ হাজার বিদ্যুৎ উৎপাদন করেছে।’

তিনি বলেন, ‘শেখ হাসনা একটি বাড়ি একটি খামার ও উন্নয়ন ব্যাংক অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছে। ভিক্ষুকরাও ফোন করে বলে আফা ভিক্ষা নিতে আসবো কিনা। নাগরিক সেবা আমরা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছি কিন্তু এখন নাগরিক সেবা মানুষের দোরগাড়ায় নয় হাতের মুঠোয়।’

তিনি বলেন, ‘নারীর ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের পার্লামেন্টে ২০% নারী নিশ্চিত করেছি। দেশের উল্লেখযোগ্য পদে নারী নেতৃত্বে দিচ্ছে। নারীরা এখন পুরুষের সাথে সমান তালে কাজ করে যাচ্ছে। সমতালে কাজের মাধ্যমে দেশ আজ অনেক এগিয়ে গেছে। আগের তুলনায় লোডশেডিং কমে এসেছে।

জেলা প্রশাসক আব্দুর সবুর মন্ডলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কৃষি মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব হেমায়েত হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল। জেলা শিল্পকলা একাডেমীর কালচারাল অফিসার আবু সালেহ মো. আবদুল্লাহ পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মাসুদ হোসেন।

অনান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ আব্দুল হাই, চাঁদপুর সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ ড. এএসএম দেলওয়ার হোসেন, স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডা সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শরীফ চৌধুরী।

টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা ২০১৭ উপর ভিডিও ডকুমেন্টরী উপস্থাপন করেন, পুরান বাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান, জেলা শিক্ষা অফিসার মো. খোরশেদ আলম, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. সফিকুর রহমান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উদয়ন দেওয়ান, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. শাহাজান মিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, জেলা দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মোস্তাক হায়দার চৌধুরী, চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওয়ালি উল্যাহ অলি, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাবেক সভাপতি ইকরাম চৌধুরী, বিএম হান্নান, বর্তমান সাধারন সম্পাদক জি এম শাহিন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মিলন, সোহেল রুশদীসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা।

প্রসঙ্গত, চাঁদপুরে ৩ দিনব্যাপি উন্নয়ন মেলায় প্রায় ৭০টি দপ্তরের অর্ধশতাধিক স্টল স্থান পেয়েছে। প্রতিদিন সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত চলবে মেলার কার্যক্রম।

প্রতিবেদক- মাজহারুল ইসলাম অনিক
: আপডেট, বাংলাদেশ সময় ০৭: ০০ পিএম, ৯ জানুয়ারি ২০১৭, সোমবার
ডিএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সেলিম আকবর-ফয়সাল-এহসানুল গণি পরিষদের পরিচিতি

চাঁদপুর ...