Home / আন্তর্জাতিক / পুলিশ সদস্যের সাথে স্ত্রীর পরকীয়ায় গ্রিসের রাষ্ট্রদূত খুন

পুলিশ সদস্যের সাথে স্ত্রীর পরকীয়ায় গ্রিসের রাষ্ট্রদূত খুন

ব্রাজিলে নিযুক্ত গ্রিসের রাষ্ট্রদূত কিরিয়াকস আমিরিদিসকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) দেশটির রিও ডি জেনিরো শহরতলির এক বাড়ি থেকে রাষ্ট্রদূত আমিরিদিসের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম খবরটি নিশ্চিত করে।

নিরাপত্তা সূত্রকে উদ্ধৃত করে আন্তর্জাতিক সংবাদামাধ্যমগুলো জানায়, ব্রাজিলে নিযুক্ত গ্রিসের রাষ্ট্রদূত কিরিয়াকোস আমিরিদিসকে (৫৯)তার ব্রাজিলীয় স্ত্রীর প্রেমিক খুন করেছেন, যিনি একজন পুলিশ কর্মকর্তা। প্রেমিকার কথায় তার স্বামীকে খুন করার স্বীকারোক্তি দিয়েছেন সের্গিও গোমেজ নামের ওই পুলিশ কর্মকর্তা নিজেই।

গত সোমবার রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন ৫৯ বছর বয়সী আমিরিদিস। বুধবার স্থানীয় পুলিশের কাছে গোমেজের নিখোঁজ থাকার খবর লিপিবদ্ধ করেন তার ব্রাজিলীয় বংশোদ্ভূত স্ত্রী ফ্রানকোয়িস অলিভাইরা। বৃহস্পতিবার রিওতে পুড়ে যাওয়া একটি গাড়ির ভেতর আমিরিদিসের লাশ পাওয়া যায়।

এএফপির খবরে জানানো হয়, হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছেন স্ত্রীর প্রেমিক পুলিশ কর্মকর্তা মোরেইরা । শুক্রবার রিওর পুলিশপ্রধান এভারিসতো পনতেস এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান। সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ দাবি করে, রাষ্ট্রদূতের স্ত্রী অলিভাইরা (৪০) ও পুলিশ কর্মকর্তা গোমেজ (২৯) দুজনেই নিজেদের মধ্যে প্রেমের কথা স্বীকার করেছেন। তাদের পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে মোরেইরার চাচাতো ভাই ইদুয়ারদো তেদেসচি জড়িত ছিলেন বলেও অভিযোগ করে পুলিশ।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের ভাষ্য অনুযায়ী তদন্তকারী পুলিশ প্রধানের কাছে অলিভাইরা বলেছেন, তিনি নিজে হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিলেন না। তবে হত্যার বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিলেন। আমিরিদিস তার স্ত্রীর সঙ্গে রিও ডি জেনিরোর উত্তরাঞ্চলে ২১ ডিসেম্বর থেকে ছুটিতে ছিলেন। আগামী ৯ জানুয়ারি তাদের ফেরার কথা ছিল। পুলিশ অলিভাইরাকে হত্যাকাণ্ড নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে পুলিশ-সদস্য মোরেইরাকে আটক করে। মোরেইরা বলেন, তার এবং আমিরিদিসের মধ্যে লড়াই হয়েছিল। এরপর আত্মরক্ষার জন্য তিনি আমিরিদিসকে হত্যা করতে বাধ্য হন।

আমিরিদিস রিওতে ২০০১ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত গ্রিসের কনসাল জেনারেল হিসেবে কাজ করেছেন। সেখানেই অলিভেইরার সঙ্গে তার দেখা হয়। তাঁদের ১০ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে।তদন্ত কর্মকর্তারা সন্দেহ করছেন, আমিরিদিসকে বাড়িতেই হত্যা করা হয়েছে। আমিরিদিসের বাড়ির সোফায় রক্ত পেয়েছে পুলিশ।

নিউজ ডেস্ক
।। আপডটে, বাংলাদশে সময় ২ : ০০ এএম, ১ জানুয়ারি ২০১৭ রোববার
ডিএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

হাইমচরে গাছ থেকে পড়ে স্কুলছাত্র নিহত

চাঁদপুর ...