Home / আন্তর্জাতিক / প্রবাস / সৌদি পোস্টের মাধ্যমে এমআরপি পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন ও বিতরণ শুরু
MRP

সৌদি পোস্টের মাধ্যমে এমআরপি পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন ও বিতরণ শুরু

সৌদিআরব প্রবাসী বাংলাদেশীরা মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (MRP) রিইস্যু’র জন্য রিয়াদে অবস্থিত “সৌদি পোস্ট”-এর নির্ধারিত অফিস সমূহে আনুষঙ্গিক কাগজপত্র জমা দিয়ে নির্দিষ্ট মেয়াদের মধ্যে নতুন MRP সংগ্রহ করতে পারবে।

১ আগষ্ট থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এর ফলে সময় ও কর্মঘণ্টা যেমনি সাশ্রয় হবে সেই সাথে বাঁচবে যাতায়াত ব্যয়। প্রাথমিক অবস্থায় রিয়াদে অবস্থিত “সৌদি পোস্ট”-এর ১০ টি শাখা থেকে এ কার্যক্রম চলছে, পরবর্তিতে তা সারাদেশে বৃদ্ধি করা হবে।

প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে এবং প্রবাসী বাংলাদেশীদের সহজে সেবা প্রাপ্তি নিশ্চিতকল্পে বাংলাদেশ দূতাবাস শুধুমাত্র MRP রিইস্যু’র আবেদন সৌদি আরবে অবস্থিত সৌদি পোস্টের নির্ধারিত অফিসের মাধ্যমে জমা নেয়া এবং নতুন MRP বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছে। আগামি ১ অক্টোবর থেকে বাধ্যতামুলক ভাবে উল্লেখিত সৌদি পোস্টের নির্দিষ্ট শাখাসমূহে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (MRP) রিইস্যু’র জন্য আবেদন জমা দিতে হবে। ৩০ সেপ্টেম্বরের পর দূতাবাসে MRP রিইস্যু’র কোন আবেদন জমা নেয়া হবে না বলে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

রিইস্যু’র জন্য দূতাবাসে আগত ব্যক্তিকে কমপক্ষে এক কর্ম দিবস ছুটি নিতে হয় এবং ছুটি না পেলে বাধ্য হয়ে একদিনের বেতন কর্তন শর্তে দূতাবাসে আসতে হয়। একই ভাবে পাসপোর্ট সংগ্রহের জন্য আরেকদিন আসলে মোট খরচ হয় তার দ্বিগুন বা আরও বেশি। অথচ সৌদি পোস্টের মাধ্যমে এই সেবা নিতে রিয়াদ শহরের ভিতরে হলে দূতাবাসের নির্ধারিত ফি-এর অতিরিক্ত মাত্র ৪০ রিয়াল এবং রিয়াদ ব্যতিত অন্য যেকোনো শহরের জন্য ৮০ রিয়াল সৌদি পোস্টের অফিসে জমা দিতে হবে। যাতে প্রবাসিদের সময় ও অর্থের সাশ্রয় হবে।

MRP রিইস্যু’র জন্য যেসব সহায়ক ডকুমেন্টস লাগবেঃ

১। মেয়াদ উত্তীর্ণ মূল পাসপোর্ট এবং তার একটি ফটোকপি (মূল পাসপোর্ট শুধু মাত্র প্রদর্শন করতে হবে তা জমা নেয়া হবে না)
২। পুরনকৃত রিইস্যু ফরম
৩। মূল ইকামা এবং ইকামার ফটোকপি (মূল ইকামা শুধু মাত্র প্রদর্শন করতে হবে তা জমা নেয়া হবে না)

দুতাবাসের ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য দেয়া আছে।

সৌদি পোস্ট তাদের নির্দিষ্ট বুথের মাধ্যমে গ্রাহকের কাছ থেকে পুরনকৃত রিইস্যু ফরম ও আনুষঙ্গিক কাগজপত্র সংগ্রহ করে দূতাবাসে জমা দিবে এবং নতুন পাসপোর্ট তৈরি হওয়ার পর দূতাবাস সেটি হস্তান্তর করলে সৌদি পোস্ট তা গ্রাহককে একই বুথের মাধ্যমে ফেরত প্রদান করবে। সৌদি পোস্ট সংগৃহীত রিইস্যুর আবেদন পত্রটি দূতাবাসে হস্তান্তরের সাথে সাথেই একটি SMS করবে এবং পাসপোর্ট বিতরণের জন্য প্রস্তুত হওয়া মাত্রই পাসপোর্ট সংগ্রহের অনুরোধ জানিয়ে আরেকটি SMS করবে। জমাদান থেকে শুরু করে পাসপোর্ট প্রাপ্তি পর্যন্ত সময় লাগবে ২০/২৫ দিন। এছাড়া যেকোনো সময় সৌদি পোস্টের Website-এ গিয়ে আবেদনটি কোন অবস্থায় রয়েছে তা জানা সম্ভব হবে।

বর্তমানে প্রতিদিন দূতাবাসে গড়ে প্রায় ৬০০ লোক সেবা গ্রহণ করতে আসেন তার মধ্যে প্রায় ৩ শতাধিখ সেবা গ্রহীতাই আসেন MRP রিইস্যু’র জন্য।

প্রসঙ্গত, ২০১৪-২০১৫ সালের মধ্যে দূতাবাস প্রায় ৪ লাখ MRP ইস্যু করেছিলো। এ উল্লখযোগ্য সংখ্যক পাসপোর্ট গ্রহীতার অধিকাংশই রিইস্যুর জন্য ২০১৮ সাল নাগাদ দূতাবাসে আসা শুরু করলে প্রতিদিন দূতাবাসে সেবা গ্রহিতার সংখ্যা প্রায় দেড় থেকে দুই হাজার হতে পারে।

এত বিশাল সংখ্যক লোকের সমাগমের ফলে সেবা পেতে বিলম্ব হতে পারে। সৌদি পোস্টের মাধ্যমে পাসপোর্ট (MRP) রিইস্যু’র আবেদন জমাদান এবং নতুন পাসপোর্ট বিতরন কার্যক্রম শুরু হলে বিপুল সংখ্যক সৌদিআরব প্রবাসী বাংলাদেশীরা উপকৃত হবেন।

বিস্তারিত জানতে দূতাবাসের Help-desk এ অথবা ওয়েবসাইট (www.bangladeshembassy.org.sa) এ দেয়া আছে।

প্রতিবেদক- সাগর চৌধুরী, সৌদি আরব
: আপডেট, বাংলাদেশ ১১: ৪০ পিএম, ৩ আগস্ট ২০১৭, বৃহস্পতিবার
ডিএইচ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

রাখাইনে নির্মাণাধীন বন্দরের ৭০ ভাগ মালিকানা পেতে যাচ্ছে চীন

মিয়ানমারের ...