Home / চাঁদপুর / ব্যাপক আয়োজনে চাঁদপুরে প্রথমবারের মতো সাহিত্য সম্মেলন

ব্যাপক আয়োজনে চাঁদপুরে প্রথমবারের মতো সাহিত্য সম্মেলন

‘সৃজনে মননে সাহিত্য’ এ শ্লোগানে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে জেলা প্রশাসন, শিল্পকলা একাডেমী ও সাহিত্য একাডেমির যৌথ আয়োজনে চাঁদপুরে এই প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয়েছে সাহিত্য সম্মেলন ২০১৭।

শনিবার (৬ মে ) বিকেলে শিল্পকলা একাডেমির সামনে থেকে স্থানীয় ও দেশবরেণ্য কবি সাহিত্যিকদের অংশগ্রহনে এক বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রার মধ্যদিয়ে সম্মেলনের শুভ সূচনা করা হয়।

এরপর শুরু হয় বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক প্রতিযোগিতা ও নির্বাচিত কবিদের কবিতা পাঠ। সন্ধ্যা ৭টায় প্রদীপ প্রজ্জলনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন দেশবরেণ্য চিত্রশিল্পী হাশেম খান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলা একাডেমির মহপরিচালক ড.শামসুজ্জামান খান।

তিনি বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের রাজনীতির প্রভাবে সাহিত্য হারিয়ে যাচ্ছে। চাঁদপুরের এ সাহিত্য সম্মেলন দেখে আমরা সত্যি খুব আনন্দিত। আমরা এখানে এসে আজকের এ আয়োজন দেখে যতুটুকু বুঝতে পেরেছি তা হলো এখানকার সাহিত্য সংস্কৃতি অনেক সমৃদ্ধশীল। বাংলাদেশের অনেক গুনি মানুষের ভিড়ে চাঁদপুরের অনেক গুনী মানুষ রয়েছেন। চাঁদপুরের ইতিহাসের ঐতিহ্য আমাদেরকে অনেক আনন্দিত, মুগ্ধ ও গর্বিত করে।

তিনি বলেন এক সময় বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় সাহিত্য সম্মেলন হতো,কিন্তু এখন আর তা হচ্ছে না। সাহিত্যের পাশাপাশি বাংলার লোক সংস্কৃতিও ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে।

এ হারিয়ে যাওয়ার মাঝে যদি আমরা আবার নতুন করে সাহিত্য সংস্কৃতি চর্চা না করি তাহলে আমরা আমাদের এই ঐতিহ্য চিরতরে হারিয়ে ফেলবো। চাঁদপুরের মতো যদি প্রত্যেক জেলায় এভাবে সাহিত্য সম্মেলন করা হয় তাহলে আমরা আমাদের সাহিত্যের ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে পারবো এবং নতুন প্রজন্মের মধ্যে সম্মান শ্রদ্ধা সৃষ্টি হবে। এ ধরনের সাহিত্য সম্মেলন হোক এটা আমরা চাই। এরপর যদি এখানে সাহিত্য সম্মেলন করা হয়, তাহলে বাংলা একাডেমির পক্ষ থেকে সকল প্রকার সহযোগিতা করা হবে।

জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ও আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন কবি ও প্রাবন্ধিক আমিনুল ইসলাম, বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক হরিশংকর জলদাস, দেশবরেণ্য কথাশিল্পী জাকির তালুকদার,চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড.এএসএম দেলওয়ার হোসেন, নজরুল গবেষক ড.আলী হোসেন চৌধুরী ও খ্যাতিমান প্রকাশক কামরুল হাসান শায়ক, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শরীফ চৌধুরী ।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমির মহাপরিচালক কাজী শাহাদাত।

প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি প্রকৌশলী মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, প্রবন্ধ পাঠ করেন বিশিষ্ট বিতর্কনুরাগী ও কবি ও লেখক ডাঃ পীযুষ কান্তি বড়–য়া।

জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার আবু সালেহ মোঃ আবদুল্লাহ ও কবি শামীম আহমেদ খানের যৌথ পরিচালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মতিন মিয়া, প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রপেসর মনোহর আলী, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব জীবন কানাই চক্রবর্তী,জেলা স্কাউট সম্পাদক অজয় কুমার ভৌমিক, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন খানসহ বিভিন্ন সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীবৃন্দ।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে সম্মিলিত পরিবেশনা, বৃন্দ-আবৃত্তি অশ্বমেধের ঘোড়া, সাহিত্য সভা,‘বাংলাদেশের কবিতা ও কথা-সাহিত্য : অর্জন বির্সজনের পাঠ ও পাঠের ও আলোচনা করা হয়।

সবশেষে প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ ও সাহিত্য একাডেমির প্রকাশনা উছল’ এর মোড়ক উন্মোচন এবং একক আবৃত্তির মধ্য দিয়ে সম্মেলনের সফল সমাপ্তি ঘটে।

প্রতিবেদক- কবির হোসেন মিজি
আপডেট, বাংলাদেশ সময় ২: ০০ পিএম, ৬ মে ২০১৭, শনিবার
ডিএইচ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

Motlob-pennai Sorok

২শ’ ৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে চাঁদপুর সওজ বিভাগের ৬ প্রকল্প গ্রহণ

চাঁদপপুর ...