Home / উপজেলা সংবাদ / ফরিদগঞ্জ / ফরিদগঞ্জে পাসের হারে শীর্ষে শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজ
শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজ- ছবি: চাঁদপুর টাইমস

ফরিদগঞ্জে পাসের হারে শীর্ষে শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজ

গেলো বছরের ন্যায় এবারো ২০১৭ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় ও সফলতার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছে ফরিদগঞ্জ উপজেলার উত্তরাঞ্চলের শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজ।

কুমিল্লা বোর্ডের ফলাফল বিপর্যয়ের মধ্যেও ওই প্রতিষ্ঠানটির কলেজ শাখা থেকে শতকরা ৯১.১৮ শতাংশ শিক্ষার্থী সফলতার সহিত উর্ত্তীণ হয়েছে। গড় পাশের হারের দিক থেকে প্রতিষ্ঠানটিই উপজেলার ৮টি কলেজর মধ্যে র্শীষে অবস্থান করছে। জেলার মধ্যে গড় পাসের হারের দিক থেকে ৪র্থ স্থানে রয়েছে এই প্রতিষ্ঠানটি। ৮৯ শতাংশ পাশের হার নিয়ে পরের অবস্থানে রয়েছে গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত বিশ^বিদ্যালয় কলেজ।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ২০১৭ সালে বিজ্ঞান ও ব্যবসায়ে শিক্ষা শাখা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় ৬৮ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে ৬২ জন উর্ত্তীণ হয়েছে। এর মধ্যে ১৫ জন ‘এ গ্রেড’, ১৮ জন এÑ, ২০ জন বি ও ৯ জন সি গ্রেডে উর্ত্তীণ হয়। ২০১৬ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলেও প্রতিষ্ঠানটি থেকে ৯৩.২৪ শতাংশ শিক্ষার্থী উর্ত্তীণ হয়েছিলো। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানের কলেজ শাখার দ্বাদশ শ্রেণিতে ১’শ৭৫ ও একাদশ শেণিতে ১’শ ৭০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত আছে।

শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে কলেজ শাখার কো-অর্ডিনেটর আল মামুন মিঠু বলেন, আমাদের এই কলেজে পাঠদানের ক্ষেত্রে শিক্ষকদের কোন সমন্বয়হীনতা নেই। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে ৪টা পর্যন্ত শ্রেণি পাঠদানের পাশাপাশি নিয়মিত টিউটরিয়াল পরীক্ষা ও একাদশ ও দ্বাদশের বই একই সাথে পড়ানো হয়। সর্বোপরি আধুনিক শিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা এখান থেকে সুশিক্ষা পেয়ে আসছে।
এসর্ম্পকে কলেজের গর্ভনিং বডির সদস্য ও প্রতিষ্ঠানের দাতা সদস্য মো. সফিউল আজম শুকু পাটওয়ারী চাঁদপুর টাইমসকে বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ভালো ফলাফলের অংশীদার হিসাবে ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া এমপি মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। প্রতিষ্ঠানের কাজে তার কাছে যখনই সহযোগিতা চাওয়া হয়। তিনি আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করে আসছেন। এছাড়া প্রতিষ্ঠানের সভাপতি নাসিরুল ইসলাম জুয়েল চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব মো. নূরুল আমিন মানিক, বিদ্যোৎসাহী সদস্য আরিফ সিদ্দিকী মাসুদ ভূইয়া, অধ্যক্ষ আরিফুর রহমান ও দাতা সদস্য আবু হাসনাত নয়ন পাটওয়ারী প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তারাও শিক্ষার্থীদের এই সাফল্যেও অংশীদার।’

শোল্লা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. আরিফুর রহমান চাঁদপুর টাইমসকে বলেন, ‘আমাদের এ প্রতিষ্ঠানে শহরের আধুনিক মানের শিক্ষার মান বজায় রেখে পাঠদান করা হয়। যে সকল শিক্ষার্থী অর্থনৈতিকভাবে অস্বচ্ছল তাদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য আমরা বিশেষ দৃষ্টি দিয়ে থাকি।’

তিনি আরো বলেন, ‘এ সফলতার দাবিদার আমার প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও গর্ভনিংবডির সদস্যরা। আগামিতেও যেনো এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকে সেই চেষ্টা অব্যাহত থাকবে|

প্রতিবেদক- আতাউর রহমান সোহাগ
: আপডেট, বাংলাদেশ ৪: ২০ পিএম, ২ আগস্ট ২০১৭, বুধবার
ডিএইচ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ভিক্ষুকমুক্ত করণে শাহতলী কলেজ শিক্ষকদের একদিনের বেতন জমা

চাঁদপুর ...