Home / রাজনীতি / নূরুল কবীরের দৃষ্টিতে যে দুই কারণে চলছে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান
Nurul-Kobir

নূরুল কবীরের দৃষ্টিতে যে দুই কারণে চলছে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান

দুর্নীতি ও টেন্ডারবাজদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। অভিযান চলছে ক্যাসিনো সম্রাজ্যের বিরুদ্ধে। এসবের সঙ্গে জড়িত ক্ষমতাসীন দল ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। সরকারের টানা তৃতীয় মেয়াদের শুরুতে কেন এমন অভিযান- জানতে চাওয়া হয় ইংরেজি দৈনিক দ্য নিউএজ সম্পাদক নূরুল কবীরের কাছে।

তিনি বলেন, প্রথমত সরকার প্রধান নিজে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। যেটা বোঝাই যাচ্ছে। এ সমস্ত দুর্বৃত্তায়ন এবং দুর্নীতির মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের মানুষের কাছে তার এবং তার সরকারের ভাবমূর্তি একটা ভয়াবহ তলানীতে এসে পৌঁছেছে। সুতরাং এটা এখন যদি কার্যকরভাবে দমন করা না যায় তাহলে তা বিপজ্জনক অবস্থায় পৌঁছে যাবে।

দ্বিতীয়ত, সরকারের ভেতর হয়তো নানান ধরনের অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে একপক্ষ আরেক পক্ষের বিরুদ্ধে কাজ করছে। তার একটা বহিঃপ্রকাশ হতে পারে। এই অভিযানের মধ্যে দেখা যাচ্ছে, একটি নির্দিষ্ট ধরন রয়েছে। অন্যান্য স্থানে না করে যুবলীগ নেতারা বা আওয়ামী লীগের শহরের নেতাদের দিকে নজর দেয়া হচ্ছে। ফলে এটা অভ্যন্তরীণ কোন্দলের ফসল নাকি সামগ্রিকভাবে ভাবমূর্তি রক্ষার প্রচেষ্টা সেটা এখনো পর্যন্ত পরিষ্কার নয় আমার কাছে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে বড় বড় দুর্নীতির যে ভয়াবহ বিস্তার লাভ করেছে। নানান সমস্যা থাকা সত্ত্বেও, বাংলাদেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে সেটি প্রচার হচ্ছে বহুদিন ধরে। মনে করার কোনো কারণ নাই সরকারের উচ্চ মহল দুর্নীতির এই ভয়াবহ বিস্তার সম্বন্ধে কোনো খোঁজখবর রাখেন না। দুর্নীতি দমন করার জন্য একটা কমিশন রয়েছে।

গণমাধ্যমে নানানভাবে বলা হচ্ছে এই কমিশন ক্ষমতাসীন দলের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট তাদেরকে বাদ দিয়ে ছোট ছোট দুর্নীতির দিকে তৎপরতা সীমাবদ্ধ রেখেছে। এই অবস্থায় আমরা দেখলাম একটি মাত্র দিক ক্যাসিনো ব্যবসা সেটার বিরুদ্ধে তৎপরতা শুরু হচ্ছে। এই ক্যাসিনোগুলো যে ব্যবসা করছে অবৈধভাবে এবং তার সঙ্গে কারা জড়িত, কারা জড়িত নয় সরকারের যত ধরনের প্রতিষ্ঠান আছে গোয়েন্দা, পুলিশ, র‌্যাব, সরকারের কাছে এসব তথ্য দেয় নাই তা ভাববার কোনো কারণ নাই। (মানবজমিন)

বার্তা কক্ষ, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯