সংবাদটি কপি করা উচিত হবে না। অনুমতি পেতে মেইল করতে পারেন news@chandpurtimes.com

Home / বিনোদন / একজন সফল স্ত্রী মা অভিনেত্রী ও পরিচালক মৌসুমীর গল্প
Moushumi
শিশু মৌসুমী ও ছেলে ফারদিনের সাথে বর্তমান মৌসুমী।

একজন সফল স্ত্রী মা অভিনেত্রী ও পরিচালক মৌসুমীর গল্প

বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগতে অভিনেত্রী মৌসুমী একটি ঝড়ের নাম, যে ঝড় এসে লণ্ডভন্ড করে দিয়েও থেমে থাকেনি। পুরো নাম আরিফা পারভিন মৌসুমী। তিনি একজন সফল অভিনেত্রী, সফল পরিচালক, সফল স্ত্রী ও সফল মাও বটে।

মৌসুমী সম্পর্কে স্বামী ওমর সানি বলেন আরিফা পারভীন জামান মৌসুমী আমার বন্ধু, জীবনসঙ্গী, আমার সন্তানদের মমতাময়ী মা, কখনও কখনও আমার অভিভাবক।

ওমর সানি আরো বলেন, আচ্ছা কেউ কি জানে-কোটি ভক্তের মতো আমিও মৌসুমীর অতি সাধারণ একজন ভক্ত? পার্থক্য কেবল একটি – ভক্তদের ভালোবাসার মানুষটাকে, এ দেশের বড় একটি সম্পদকে আমি আগলে রাখার সৌভাগ্য অর্জন করেছি। আমি ঋণি সৃষ্টিকর্তার কাছে, ঋণী মৌসুমী তোমার কাছেও- এমন সুযোগ দেয়ার জন্য।

এই ঋণ আমি শোধ করতেও চাই না! কেননা কিছু কিছু ঋণের বোঝা বইতে পারার মাঝেও তৃপ্তি আছে । মহান আল্লাহ তার করুণাধারা সব সময় তোমার উপর বর্ষিত করুন- এই কামনা রইলো। ভালোবাসা।

৩ শতাধিক ছবিতে অভিনয় করে তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ী মৌসুমীর জন্যেই প্রযোজ্য ‘এলাম দেখলাম আর জয় করলাম’ বিশেষণ। বাংলা চলচ্চিত্রে আবির্ভাব ঘটিয়ে যে দুই জুটি তুমুল আলোচিত হন এরা হলেন মৌসুমী-সালমান ও শাবনাজ-নাঈম।

কালজয়ী অভিনেতা সালমান শাহ এর বিপরীতে কেয়ামত থেকে কেয়ামত ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে তাঁর আবির্ভাব হলেও পর্দায় তাদের মোটেও আনকোড়া মনে হয় নি। ঝড় তোলেন একের পর এক হিট ছবি দিয়ে। অন্তরে অন্তরে ছবি গানে কাহিনিতে তুমুল হইচই ফেলে দেয় সারাদেশে।

মৌসুমীর শুরুটা কেয়ামত থেকে কেয়ামত দিয়ে হলেও এ পর্যন্ত দুই শতাধিক ছায়াছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। এছাড়া পরিচালক হিসেবেও তিনি একজন সফল ব্যক্তিত্ব। ২০০৩ সালের চলচ্চিত্র কখনো মেঘ কখনো বৃষ্টি পরিচালনার মাধ্যমে একজন পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

মৌসুমী ১৯৯৬ সালে বিয়ে করেন আরেক তারকা অভিনেতা ওমর সানীকে। ওমর সানীও মৌসুমীকে ‘চিরসবুজ অভিনেত্রী’ হিসেবে আখ্যা দেন। ‘হোয়াট এ ইনক্রিডেবল’ পিচকার লিখে তিনি মৌসুমীর দুই বছরের একটি ছবি পোস্ট করেন তার ফেসবুক টাইমলাইনে। মৌসুমীর অভিনয় থেকে শুরু করে রান্না সবকিছুতেই ওমর সানীর প্রসংশা লেগে আছে।

তবে অভিনয়ে এখন আর আগের মতো ব্যস্ততা নেই। চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন বেছে বেছে। নাটক করছেন। অভিনয়ে ব্যস্ততা না থাকায় ভিনয়ে এখন আর আগের মতো ব্যস্ততা নেই। চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন বেছে বেছে নাটক করছেন।

এছাড়া মৌসুমী দীর্ঘদিন ধরে নারী ও শিশুদের জন্য কাজ করছেন। ছিলেন ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত। নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছেন শিশুদের জন্য।

উইকি-মতে মৌসুমীর জন্ম ১৯৭৩ সালে। মৌসুমী ১৯৯৬ সালের ২ আগষ্ট তারিখে জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ওমর সানী এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবন্ধ হন।দাম্পত্য জীবনে তাদের দু’সন্তান মধ্যে বড় ছেলে ফারদিন এহসান স্বাধীন বিদেশে ফিল্ম ইন্ড্রাস্ট্রি নিয়ে লেখাপড়া করছেন। আর মেয়ে ফাইজা তাঁদের সাথে থেকে লেখাপড়া করছেন।

মৌসুমী নিজের সেবামূলক প্রতিষ্ঠান “মৌসুমী ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন” দেখাশুনা করে থাকেন। এছাড়াও তিনি একজন ফ্যাশন ডিজাইনার হিসাবে কাজ করে থাকেন। বর্তমানে তিনি ঢাকার বসুন্ধরা সিটি মার্কেটের একটি পোশাক স্টল “লেভিস” এর মালিকানার দায়িত্বে রয়েছেন।

চাঁদপুর টাইমস রিপোর্ট
১৮ এপ্রিল ২০১৯