Home / লাইফস্টাইল / মারকিউরাস নাইট্রাইটের আবিষ্কারক প্রফুল্ল চন্দ্র রায়

মারকিউরাস নাইট্রাইটের আবিষ্কারক প্রফুল্ল চন্দ্র রায়

১৮৬১ সালের ২ আগস্ট দিনে জন্মগ্রহণ করেন রসায়নবিদ, বিজ্ঞান শিক্ষক এবং মারকিউরাস নাইট্রাইটের আবিষ্কারক প্রফুল্ল চন্দ্র রায়। দেশে শিল্পায়নের গুরুত্ব অনুভব করে তিনি বেঙ্গল কেমিক্যাল প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি বিজ্ঞানী জগদীশচন্দ্র বসুর সহকর্মী ছিলেন। মা ভুবনমোহিনী দেবী ও বাবা হরিশচন্দ্র রায়।

জমিদার বাবার প্রতিষ্ঠিত স্কুলে পড়াশোনা শুরু করেন। পরে কলকাতায় অ্যালবার্ট স্কুল থেকে এন্ট্রান্স পাস করে মেট্রোপলিটন ও প্রেসিডেন্সি কলেজে (বর্তমান বিদ্যাসাগর কলেজ) পড়েন। গিলক্রিস্ট বৃত্তি নিয়ে স্কটল্যান্ডের এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়েছিলেন। যথাক্রমে বিএসসি,ডিএসসি ও পিএইচডি নিয়ে ১৮৮৮ সালে দেশে ফিরে আসেন।

এরপর প্রেসিডেন্সি কলেজে অধ্যাপনায় যুক্ত হন। অবসর নেওয়ার পর অনেক বছর বিজ্ঞান কলেজের রসায়ন বিভাগের ‘পালিত অধ্যাপক’ ছিলেন। ২৪ বছর অধ্যাপনাকালে তিনি রসায়ন নিয়ে গবেষণা করে গেছেন।

১৮৯৫ সালে মারকিউরাস নাইট্রাইট আবিষ্কার করে বিশ্বব্যাপী সাড়া ফেলেন। ১২টি যৌগিক লবণ ও পাঁচটি থায়ো-এস্টারের আবিষ্কারক তিনি। ১৯০১ সালে প্রতিষ্ঠা করেন বেঙ্গল কেমিক্যাল অ্যান্ড ফার্মাসিউটিক্যাল ওয়ার্কস। তার অর্থ সাহায্য ও উদ্যোগে ‘ইন্ডিয়া কেমিক্যাল সোসাইটি’ স্থাপিত হয়। ১৯২৪ থেকে ১৯৪৪ সাল পর্যন্ত তিনি যাদবপুর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি ছিলেন। লিখিত গ্রন্থের মধ্যে আছে :‘সিপাহী বিদ্রোহের আগে ও পরে’,

‘মস্তিষ্ক ও তার অপব্যবহার’,‘অন্ন সমস্যায় বাঙালির পরাজয় ও তাহার প্রতিকার’,‘আত্মচরিত’ ইত্যাদি। ডারহাম বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান তাকে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি দেয়। ১৯১৯ সালে তিনি ‘নাইট’ উপাধি পান।

১৯৪৪ সালের ১৬ জুন মৃত্যুবরণ করেন।

বার্তা কক্ষ
২ আগস্ট ২০১৯