Home / সারাদেশ / এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা ১১ অক্টোবর
দেশের ১৯ টি কেন্দ্রের ৩২ টি ভেন্যুতে আগামি শুক্রবার ১১ অক্টোবর একযোগে এমবিবিএস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সুষ্ঠু ও নকল মুক্ত
ফাইল ছবি

এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা ১১ অক্টোবর

দেশের ১৯ টি কেন্দ্রের ৩২ টি ভেন্যুতে আগামি শুক্রবার ১১ অক্টোবর একযোগে এমবিবিএস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সুষ্ঠু ও নকল মুক্ত পরিবেশে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করতে সরকার কঠোর উদ্যোগ নিয়েছে ।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ সচিব মো.আসাদুল ইসলাম সোমবার ৭ অক্টোবর দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ।

তিনি বলেন,‘এ পরীক্ষার্থীদের নির্বিঘ্নে চলাচল,নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য সকল প্রকার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ সময় তিনি অভিভাবকদের কোনো প্রকার গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান জানান।

স্বাস্থ্য সচিব জানানএবারের এমবিবিএস পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পূর্ণ নকল মুক্ত পরিবেশে সম্পাদনের জন্য অংশীজনদের নিয়ে চারটি সভা করা হয়েছে। প্রশ্নপত্র প্রণয়েনে প্রযুক্তিগত পরিবর্তন আনা হয়েছে। প্রশ্নপত্র প্রেরণের জন্য ট্রাংকের সাথে সংযুক্ত ট্রাকিং ডিভাইস সমূহ ইতিমধ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে।

আসাদুল ইসলাম বলেন,‘পরীক্ষা সামনে রেখে সার্বিক নিরাপত্তা নিয়েও একাধিক বৈঠক করা হয়েছে। বৈঠকে সাইবার ক্রাইম প্রতিরোধ, কোচিং সেন্টার বন্ধকরণ ও পরীক্ষা কেন্দ্রের আশপাশের ফটোকপি মেশিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এছাড়া পরীক্ষা কেন্দ্রের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ,প্রশ্ন ও উত্তর পত্রের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করা হয়েছে। বৈঠকে কুচক্রী মহলের অপরাধ তৎপরতা বন্ধে জননিরাপত্তা বিভাগ,পুলিশ,র‌্যাব,ডিজিএফআই ও এনএসআইসহ সংশ্লিষ্টদের সক্রিয় অবস্থায় রাখা হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, এবারের সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস প্রথমবর্ষ ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তরপত্রে কোনো সেলাই থাকবে না। বিগত বেশ কয়েক বছর যাবৎ ভর্তি পরীক্ষায় ৮ পৃষ্ঠার সেলাই করা প্রশ্ন ও উত্তরপত্র থাকতো। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর প্রথমবারের মতো এবার এক পাতার (দু’পৃষ্ঠার) মধ্যে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র ছাপানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র আরো জানায়,এবার এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীর প্রত্যেকের জন্য এক সেট করে প্রশ্ন প্রণয়ন করা হবে। এছাড়া প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর প্রশ্ন হবে ভিন্ন।

১ শ’টি প্রশ্ন থাকলেও কোন প্রশ্ন কোথায় বা কত নম্বরে থাকবে তা কোনো পরীক্ষার্থী বুঝতে পারবেন না। শুধু তাই নয়, মাত্র এক পাতার প্রশ্ন ও উত্তরপত্র কোনো প্রেসে ছাপানো হবে না। অত্যন্ত কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করে অধিদপ্তরের নিজস্ব উদ্যোগে এ দু’পৃষ্ঠার প্রশ্ন ও উত্তরপত্র ছাপানো হবে।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ,ওভারসাইট কমিটির সভাপতি ডা.মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন,সদস্য আবুল মকসুদ,দৈনিক আমাদের অর্থনীতির সম্পাদক নাইমুল ইসলাম খানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বার্তা কক্ষ , ৯ অক্টোবর,২০১৯