Home / উপজেলা সংবাদ / কচুয়া / ৫৩ বছরেও নির্মিত হয়নি শহীদ মিনার

৫৩ বছরেও নির্মিত হয়নি শহীদ মিনার

কচুয়া উপজেলার পুরোনো বিদ্যালয়ের মধ্যে ৩২নং বক্সগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অন্যতম। বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠত হয় ১৯৬৭ সালে। কিন্তু ৫৩ বছর বছর পরে এসেও এখানে শহীদ মিনার নির্মিত হয়নি। ওই বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগও নেই কারো। কচুয়ার কিছু প্রতিষ্ঠান অস্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করে তাতে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানায় শিক্ষার্থীরা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, পালাখাল মডেল ইউনিয়নের বক্সগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় একদিকে যেমন ভবন জরাজীর্ণ অপরদিকে নেই কোনো শহীদ মিনার। এতে করে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে শিক্ষার্থীরা ভোগান্তিতে পড়ে। উপজেলা প্রশাসন ও কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি হয়নি এই বিদ্যালয়ের।

তবে ওই বিদ্যালয়ের শ্রেনী কক্ষ সংকট থাকায় শ্রেনী পাঠদান করাতে অগাদ সমস্যা হচ্ছে।

বক্সগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা বলেন, বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নেই বলে একুশে ফেব্রুয়ারি পালন করতে কলা গাছ দিয়ে শহীদ মিনার নির্মান করে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে হয়। স্থায়ী ভাবে এই স্কুল একটি শহীদ মিনার স্থাপন দাবি জানান।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো: মহিউদ্দনি বলেন, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এই বিদ্যালয়ে কোনো শহীদ মিনার স্থাপন করা হয়নি। পাশাপাশি বিদ্যালয়ের ভবনটিও জরাজীর্ণ। ঝুঁকিতে অনেক সময় শিক্ষার্থীদের ক্লাস করতে হয়। তাই অতি দ্রুত বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার স্থাপনসহ নানা সংমস্যা সমাধানে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কমানা করি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোকসানা আক্তার বলেন, বিদ্যালয়ের শ্রেনী কক্ষ সংকট,শহীদ মিনার স্থাপন, নতুন ভবন নির্মান,আসবাবপত্র ও সৌর বিদ্যুৎ সহ নানান সমস্যা রয়েছে। তবে বেশী প্রয়োজন পরে বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ও নতুন একাডেমিক খবন।

অচিরেই এসব সমস্যা সংকট নিরসনে স্থানীয় সাংসদ সদস্য ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর ও কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির এবং উপজেলা প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন তিনি।

জিসান আহমেদ নান্নু