Home / বিশেষ সংবাদ / ২৫ বছর আগে দাফনকৃত লাশ অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার

২৫ বছর আগে দাফনকৃত লাশ অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার

বাড়ি করার জন্য মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছর আগে দাফনকৃত নূরুজ্জামান নামের এক ব্যক্তির লাশ অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা।

২৪ জুলাই শুক্রবার বিকেলে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার যদুবয়বা ইউনিয়নের বহলবাড়িয়া গ্রামে লাশটি পাওয়া যায়।

নিহত নূরুজ্জামান ওই গ্রামের মৃত মনোহর মিস্ত্রির ছেলে। তিনি পেশায় একজন কাপড় ব্যবসায়ী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বহলবাড়িয়া গ্রামের আতর আলীর ছেলের নতুন বাড়ি বানানোর জন্য মাটি কাটতে গিয়ে এই মরদেহ দেখতে পায় মাটি কাটা শ্রমিকরা। পরে স্থানীয়রা সবাই এসে মরদেহ শনাক্ত করে এবং সন্ধ্যায় বহলবাড়িয়া কবরস্থানে পুনরায় দাফন করা হয়।

মরদেহ শনাক্ত করে নিহতের মামাতো ভাই সানোয়ার বলেন, নুরুজ্জামান একজন সৎ কাপড়ের ব্যবসায়ী ছিলেন। প্রায় ২৫ বছর আগে ব্যবসায়িক কাজে ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরার পথে ডাকাতের কবলে পড়ে ডাকাতদল তাকে ধরে কুমারখালী গড়াই নদীর পাড়ে মুখের মধ্যে বিষাক্ত পলিথিন ও গামছা দিয়ে অজ্ঞান করে মালামাল লুট করে ফেলে দিয়ে চলে যায়।

পরবর্তীতে খোঁজাখুজির পরে নদীর পাড় থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে প্রায় এক মাস পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। পরে বাড়ির পাশের বাগানে দাফন করা হয়েছিল।
শুক্রবার নিহতের চাচাতো ভাই বাড়ি করার জন্য মাটি কাটতে গেলে মরদেহটি অক্ষত অবস্থায় পাওয়া যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চৌরঙ্গী তদন্তের কেন্দ্রের ইনচার্জ ইনস্পেক্টর রাকিব হাসান বলেন, মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছরের পুরনো নুরুজ্জামান নামের এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করে পুনরায় দাফন করেছে স্থানীয়রা। তবে মরদেহটি পুরাপুরি অক্ষত এবং অবিকৃত অবস্থায় ছিল।

এদিকে ২৫ বছরের পুরোনো মরদেহ উদ্ধারের খবর ছড়িয়ে পড়লে চাঞ্চল্যকর অবস্থার সৃষ্টি হয়।
বার্তা কক্ষ, ২৫ জুলাই ২০২০

ইন্টারনেট কানেকশন নেই