Home / উপজেলা সংবাদ / হাজীগঞ্জ / হাজীগঞ্জ বাজারে পুলিশ দেখলে বন্ধ হয়ে যায় দোকানের শাটার

হাজীগঞ্জ বাজারে পুলিশ দেখলে বন্ধ হয়ে যায় দোকানের শাটার

চাঁদপুরের জেলা প্রশাসন গত ১০ মে থেকে জেলার সব শপিংমল দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। সে মোতাবেক হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতি একমত পোষণ করে। কিন্তু কিছু অসাধু ব্যবসায়ী তা উপেক্ষা করে তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

১৩ মে বুধবার দুপুরে চাঁদপুর হাজীগঞ্জ বাজারের পৌর বিপণি বিতানের সামনে দাঁড়াতেই শপিংমলের ভেতর থেকে আওয়াজ আসছে ‘আইয়ে রে আইয়ে’। আর সঙ্গে সঙ্গেই সব দোকানের শাটার নামতে শুরু করল। মুহূর্তেই সব দোকান বন্ধ।

দোকানগুলোর সামনে একজন করে দাঁড়ানো, হাতে তালা। পুলিশ আসছে এমন খবরে সবাই পালাল। আসলে পুলিশ আসেনি। যখন বুঝল এটি মিথ্যা, তখনি আবার দোকানদাররা আবার দোকানের শাটারের এক সাইড টেনে ক্রেতা ডাকতে শুরু করে। এমন লুকোচুরি হাজীগঞ্জ বাজারের নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দোকানীরা কখনও শাটার খুলে কখনও শাটার নামিয়ে লুকোচুরি করে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। আর প্রতিদিন ভিড় করছে শত শত ক্রেতা। যেখানে নেই কোনো সামাজিক দূরত্বের বালাই। তাছাড়া বেশির ভাগ মানুষের মুখে নেই মাস্ক। শিশুরাও ভিড় করছে। যা অত্যন্ত ভয়ানক।

হাজীগঞ্জ বাজারের বিশাল শপিং সেন্টার, হাজীগঞ্জ প্লাজা, বণিকপট্টি, হাজীগঞ্জ টাওয়ার মার্কেট ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

হাজীগঞ্জ বাজার সমিতির সাধারণ সম্পাদক হায়দার পারভেজ সুজন বলেন, আমরা প্রসাশনের নির্দেশনা অনুযায়ী মার্কেট বন্ধের জন্য মাইকিং করেছি। প্রশাসন এ বিষয়ে নজর রাখছে। তবে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী এ ধরনের কর্মকাণ্ড করছে।

এ ব্যাপারে হাজীগঞ্জ থানার ওসি আলমগীর হোসেন রনি বলেন, আমরা সাধ্যমত চেষ্টা করছি। এখানে
সমিতিকেও এগিয়ে আসতে হবে।

হাজীগঞ্জ করেসপন্ডেট,১৪ মে ২০২০