Home / শীর্ষ সংবাদ / হাজীগঞ্জে ওড়নাতে আগুন ধরে ঝলসে গেল গৃহবধূ
Fire rape
প্রতীকী ছবি

হাজীগঞ্জে ওড়নাতে আগুন ধরে ঝলসে গেল গৃহবধূ

চাঁদপুর হাজীগঞ্জ উপজেলার নুপুর বেগম নামের গৃহবধূ আগুনে ঝলসে গেছে। ১৬ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকালে তাকে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে সেখান থেকে রাজধানীর বার্ণ ইউনিটে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ওই গৃহবধূ হাজীগঞ্জ উপজেলার গর্ন্ধব্যপুর উত্তর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের ফকির বাড়ির সরোয়ার হোসেনের স্ত্রী। সে দুই সন্তানের জননী। স্বামী সরোয়ার হোসেন ঢাকা একটি কোম্পানিতে চাকরি করেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে রান্না ঘরে ভাত রান্না করতে গিয়ে ওড়নাতে আগুন ধরে যায়। আগুন নিয়ে রান্নাঘর থেকে দৌড়ে বেরিয়ে আসলেও রক্ষা হয়নি তার শরীর।

হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার কর্মকর্তা সোয়েব আহম্মেদ বলেন, নুপুর বেগমের শরীরের প্রায় ৬০ শতাংশ পুড়ে গেছে।
গৃহবধূর শশুর আমিন ফকির বলেন, সকালে রান্না ঘর থেকে আগুন নিয়ে চিৎকার দিয়ে বের হয়। বাড়ির সকলেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও তার শরীরের উপরের অংশ পুড়ে গেছে।

স্পেশাল করেসপন্ডেট