Home / আন্তর্জাতিক / সৌদিতে ২৪ ঘন্টা কারফিউর মধ্যে ঈদুল ফিতর রোববার

সৌদিতে ২৪ ঘন্টা কারফিউর মধ্যে ঈদুল ফিতর রোববার

সৌদি আরবে ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হবে ২৪ মে রোববার। ৩০ রোজা পূর্ণ করে ২৪ ঘন্টা কারফিউর মধ্যে ঘরে বসে ঈদের নামাজ আদায় করতে হবে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে কতৃপক্ষ।

সৌদি ইসলাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী শেখ আব্দুল লতিফ আস শায়খ দেশটির সকল মসজিদ এবং ঈদগাহে ঈদের জমায়েত না করার নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি বলেন, এই ঈদের জন্য এটা সাময়িক নিষেধাজ্ঞা।

এর আগে সৌদি গ্র্যান্ড মুফতি শায়খ আব্দুল আজিজ এবং সিনিয়র ইসলামিক স্কলাররা ঘরে ঈদের নামাজ পড়ার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেন। তারা বলেন, ঘরে ঈদের নামাজ পড়তে বাঁধা নেই।

এদিকে ঈদের আনন্দ নেই বেশির ভাগ প্রবাসীর মাঝে। কর্মহীন অনেকে অনাহারে অর্ধাহারে জীবনযাপন করছে। দেশে থাকা তাদের পরিবারে চলছে বোবাকান্না। তাই, অসহায় প্রবাসী পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে তাদের সহায়তার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান প্রবাসীরা।

এদিকে সৌদি আরবে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বেড়েই চলছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত চাঁদপুরের ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তবে সৌদি সরকারের তালিকায় এখন পর্যন্ত ৪ জনের নাম রয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ১৩৭ জন বাংলাদেশী করোনায় মারা যাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে সৌদি সরকার।

করোনার পাশাপাশি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েও মারা যাচ্ছে প্রবাসী বাংলাদেশী অনেক রেমিটেন্স যোদ্ধা। বিশেষ করে বেকার, কর্মহীন হয়ে পড়া এবং বেতন না পাওয়া বাংলাদেশীরা দুশ্চিন্তায় সময় অতিবাহিত করছে। তবুও ঈদ সামনে রেখে অনেকেই ধার-দেনা বা সঞ্চয় থেকে দেশে টাকা পাঠিয়েছেন।

সৌদি সরকার কর্তৃক ২১ মে বৃহস্পতিবার প্রকাশিত সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী সৌদি আরবের জেদ্দায় করোনায় মারা গেছেন চাঁদপুরের আশিকাটি ইউনিয়নের পাইকাস্তা গ্রামের হাফেজ শাহজান। তার পিতার নাম মোহাম্মদ হাসান আলী।

এছাড়া ১৭ মে মক্কা শহরে মারা যান একই ইউনিয়নের রালদিয়া গ্রামের খালেদ পাটোয়ারী। তবে খালেক পাটওয়ারীর নাম সৌদি সরকারের তালিকায় এখনো লিপিবদ্ধ হয়নি। তার পারিবারিক সূত্র জানায়, তিনি কয়েক দিন ধরে করোনায় আক্রান্ত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ১৭ মে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

চাঁদপুর জেলার আরো যে ৩ জন পূর্বে করোনায় মারা গেছেন তারা হলেন-মদিনায় মারা যাওয়া সিরাজ, পিতা-হারুন অর রশিদ, গ্রাম-গাবুয়া, ডাকঘর-পয়েলি বাজার, উপজেলা- মতলব দক্ষিণ, জেলা- চাঁদপুর । মোহাম্মদ জাহিদ, পিতা-মোহাম্মদ ফিরোজ, গ্রাম- চরভাংগা, ডাকঘর- গন্ডামারা, উপজেলা- হাইমচর, জেলা-চাঁদপুর। মক্কায় মারা যাওয়া- সিরাজ, গ্রাম- ফোনাশাইল, ডাকঘর- রহিমানগর, উপজেলা- কচুয়া, জেলা-চাঁদপুর।

প্রতিবেদক:সাগর চৌধুরী,২৩ মে ২০২০