Home / উপজেলা সংবাদ / কচুয়া / শিশু শিক্ষায় আলো ছড়াচ্ছে কচুয়ার অটিজিয়াম বিদ্যালয়
Otisom-school

শিশু শিক্ষায় আলো ছড়াচ্ছে কচুয়ার অটিজিয়াম বিদ্যালয়

অটিজিয়াম ও গরীব অসহায় শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত প্রতিবন্ধী অটিজিয়াম বিদ্যালয় ও মন্নুজান কিন্ডার গার্ডেন এন্ড হাই স্কুলটি শিশু শিক্ষায় আলো ছড়াচ্ছে। চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার ৭নং সদর দক্ষিনা ইউনিয়নের মধ্য হোসেনপুর গ্রামে ছায়া ঘেরা ও মনোরম পরিবেশে অবস্থিত শিশু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি ২০১৬ সালে এলাকার কোমলমতি শিশুদের শিক্ষা বিস্তারের চাহিদা মেটাতে প্রতিষ্ঠাতা করা হয়।

বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার ক’বছর না হতেই এলাকায় বেশ সুনাম, সুখ্যাতি ছড়িয়ে পড়েছে। বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, অজো পাড়াগায়ে নির্মিতব্য প্রতিবন্ধী অটিজিয়াম বিদ্যালয় ও মন্নুজান কিন্ডার গার্ডেন এন্ড হাই স্কুলে বর্তমানে ৬ জন শিক্ষক পরম মমতায় ও বন্ধু সুলভ ব্যবহার দিয়ে প্রায় শতাধিক কোমলমতি শিক্ষার্থীদের শিক্ষাদান করে আসছেন।

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে পড়–য়া শিক্ষিত বেকার শিক্ষকগণ তাদের আন্তরিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে তিন-বছরের মাতায় বিদ্যালয়টি স্থানীয় অধিবাসীদের মাঝে বেশ পরিচিত হয়ে উঠে। বিশেষ করে অটিজিয়াম ও এতিম শিশুদের নিয়ে কাজ করায়,জাতীয়,স্থানীয় বিভিন্ন দিবস পালন,অভিভাবক সমাবেশ ও উপজেলায় পর্যায়ে ফলাফলের শীর্ষে রয়েছে।

বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক মো.মিনহাজ উদ্দিন তালুকদার বলেন, বিদ্যালয়টি শিশু শিক্ষা বিস্তারে দিন দিন এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বর্তমানে একাডেমিক ভবন,খেলার মাঠ,রাস্তা,শ্রেনী কক্ষ,আসবাবপত্র ও আর্সেনিক মুক্ত টিউবওয়েল না থাকায় সীমাহীন কষ্টের মধ্য দিয়ে পাঠদান করে যাচ্ছি। বিদ্যালয়টি এলাকার সকলের সহযোগিতায় একটি ব্যতিক্রম বিদ্যালয় রুপান্তর করতে চাই। চলতি শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থী ভর্তি ও অন্যান্য ক্ষেত্রে এলাকাবাসী, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় প্রশাসনের সর্বাত্মক সহযোগিতা চাই।

বিদ্যালয়ের পরিচালক, দৈনিক বিবর্তন পত্রিকার সম্পাদক খান মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম বলেন,প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ও পূর্নবাসন কল্যান সংস্থার সহযোগিতা নিয়ে এ বিদ্যালয়ের ৩২ জন অটিজিয়াম শিক্ষার্থীকে বিনামূল্যে পাঠদান ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে। পাশাপাশি সাধারন শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয় মুখী ও সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করতে শিক্ষক ও পরিচালনা পর্ষদ আনন্দের সাথে স্বল্প বেতনে কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিক্ষকদের আন্তরিক প্রচেষ্ঠায় সুনামের সাথে এগিয়ে যাওয়ায় আমি বিদ্যালয়ের সাথে সংশ্লিষ্টদের ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আন্তরিক অভিনন্দন জানাই।

বিদ্যালয়ের সভাপতি মো: সাদ্দাম হোসেন জানান, ব্যবসায়ীক উদ্দেশ্যে নয়, এলাকার সাধারণ ও নিরীহ পরিবারের সন্তানদের সু-শিক্ষা দেয়ার লক্ষ্যে এ প্রতিষ্ঠানটি স্থাপন করা হয়েছে। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিনোদন তথা সু-শিক্ষা গ্রহনে এগিয়ে নেয়ার জন্য সকলের সর্বাত্বক সহযোগীতা চাই।

বিদ্যালয়ের অভিভাবক জান্নাত বেগম জানান, বিদ্যালয়টি লেখাপড়ার মান খুবই ভালো। তাই আমার সন্তানকে এ বিদ্যালয়ে ভর্তি করিয়েছি। আমরা বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মাধ্যমে আমাদের সন্তানদের উন্নত ভবিষ্যত দেখছি।

তৃতীয় শ্রেনীর শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান ও নাহিদা আক্তার জানান, স্যাররা আমাদের অভিভাবক। আমাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়ে তুলতে তারা পিতৃস্নেহ প্রতিনিয়ত পাঠদান করাচ্ছেন।

এদিকে কচুয়ায় সম্পূর্ন বেসরকারি ও ব্যক্তি অর্থায়নে একমাত্র প্রতিষ্ঠিত অটিজিয়াম স্কুল হিসেবে পরিচিত প্রতিবন্ধী অটিজিয়াম বিদ্যালয় ও মন্নুজান কিন্ডার গার্ডেন এন্ড হাই স্কুলটি আরো সাফল্য ও একাডেমিক উন্নত করে তুলতে সংশ্লিষ্ট দফতরের সহযোগিতা চেয়েছেন অভিভাবক ও এলাকাবাসী।

প্রতিবেদক:জিসান আহমেদ নান্নু

ইন্টারনেট কানেকশন নেই