Home / রাজনীতি / যে মামলায় সাঈদীর ছেলে মাসুদ কারাগারে
masud

যে মামলায় সাঈদীর ছেলে মাসুদ কারাগারে

পিরোজপুরের ইন্দুরকানি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ সাঈদীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বিস্ফোরকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় মাসুদ সাঈদী জামিনের আবেদন করলে তা নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

মঙ্গলবার(১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পিরোজপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মাসুদ সাঈদীর জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হয়। শুনানি শেষে তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক মোহাম্মদ সামছুল হক।

মাসুদ সাঈদী একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আমৃত্যু কারাদণ্ডে দণ্ডিত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ছোট ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ডিসেম্বরে জেলা শহরের বাইপাস সড়কের সাঈদী ফাউন্ডেশনের সামনে নাশকতার একটি ঘটনায় পুলিশ তিনজনকে আটক করে মামলা দেয়।

পরে মাসুদ সাঈদী চলতি বছরের ৮ জানুয়ারি উচ্চআদালত থেকে ছয় সপ্তাহের জামিন নিয়ে মঙ্গলবার পিরোজপুরের নিম্নআদালতে হাজির হন। পরে তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেয়া হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৬ ডিসেম্বর দিনগত রাত ১টার দিকে ইন্দুরকানী উপজেলার সাঈদখালী গ্রামের অহিদুজ্জমান খানের বাড়িতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচাল করতে জামায়াত-শিবির গোপন বৈঠক করে।

খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালালে ঘটনাস্থল থেকে আসামিরা পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় আসামি ওবায়দুল্লাহ ও হাফেজ জাকির হোসেনকে আটক করে পুলিশ।

তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে মাসুদ সাঈদীর সঙ্গে গোপন বৈঠক করছিল বলে জানায়। পরে অহিদুজ্জামানের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে চারটি ককটেল ও পাঁচটি পেট্রলবোমা উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় মাসুদ সাঈদীকে প্রধান আসামি করে অজ্ঞাত আরও ১০-১৫ জনের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অহিদুজ্জামান ফকির বাদী হয়ে বিস্ফোরকদ্রব্য আইনে একটি মামলা করেন।

মামলার পর হাইকোর্টের দেয়া ছয় সপ্তাহের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন শেষে নিম্নআদালতে হাজিরা দিতে গেলে জামিন বাতিল করে মাসুদ সাঈদীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। (যুগান্তর)

বার্তা কক্ষ
১৯ ফেব্রুয়ারি,২০১৯