Home / উপজেলা সংবাদ / মতলব দক্ষিণ / মতলব দক্ষিণ উপজেলা সহকারী কৃষি কর্মকর্তার ইন্তেকাল

মতলব দক্ষিণ উপজেলা সহকারী কৃষি কর্মকর্তার ইন্তেকাল

চাঁদপুর মতলব দক্ষিণ উপজেলার সহকারী কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা মো. আজহারুল হক কিরণ (৫৮) আর বেঁচে নেই।

বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের পিংড়া গ্রামে আনসার ভিডিপির একটি প্রশিক্ষণ শেষে ফেরার পথে হৃদযন্ত্রক্রীয়া (হার্ট স্ট্রোক) বন্ধ হয়ে ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজেউন)।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ২ মেয়ে ১ ছেলেসহ অসংখ্য আত্বীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, সহকর্মী ও গুণীগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ বাদ মাগরিব মতলব নিউ হোষ্টেল মাঠে মরহুমের প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাজার পূর্বে মরহুমের স্মৃতিচারন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহিদুল ইসলাম, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ড. নজরুল ইসলাম, চাঁদপুর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ইনিষ্টিউটের সভাপতি সারোয়ার খান, মতলব দক্ষিণ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বিল্লাল হোসেন মৃধা, মতলব পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, মরহুমের ভগ্নিপতি আদিলুর রহমান ও মরহুমের বড় জামাতা সাইয়েদুল আরেফিন শ্যামল।

মরহুমের নামাজে জানাজার ইমামতি করেন উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের খতিব মুফতি মাওলানা মোরশেদ আলম সিরাজী।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবীদ দিলরুবা খানম বলেন, ‘আজহারুল হক কিরন আজ বেলা ১১ টায় পিংড়া আনসার ভিডিপির অনুষ্ঠান শেষে দুপুর ১ টায় মতলবের উদ্দেশ্যে রওনা হলে হঠাৎ তার বুকের ব্যাথা অনুভব করলে মুন্সিরহাট বাজারে আবুল কালাম ডাক্তারের ফার্মেসীতে যায়।

সেখানে গিয়ে তিনি উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোক্তার হোসেনকে ফোন করলে তিনি সাথে সাথে সেখানে গিয়ে দেখতে পান সে অসুস্থতা বোধ করছেন। হঠাৎ আজরুল হক কিরন জ্ঞান হারিয়ে ফেললে দ্রুত চাঁদপুর ২৫০শয্যা বিশিষ্ট্য সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার ইসিজি পরীক্ষা করে জানান তিনি হার্ট স্ট্রোক করে হাসপাতালে আনার পূর্বেই মারা গেছেন।

প্রসঙ্গ, আজহারুল হক কিরন শিক্ষা জীবন শেষ করে মতলব দক্ষিণ উপজেলা কৃষি অফিসে ১৯৯২ সালে ব্লক সুপারভাইজার হিসেবে চাকরীতে যোগদান করেন। তিনি পদোন্নতি পেয়ে সহকারী কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পান। তার আগামী ২০১৯ সালের আগষ্ট মাসে অবসরে যাওয়ার কথা ছিল।

এদিকে আজহারুল হক কিরনের প্রথম নামাজে জানাজা শেষে কুমিল্লার তিতাস উপজেলার কদমতলী নিজ গ্রামে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে তার পরিবারসূত্র জানায়।

আজহারুল হক কিরনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকসন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমাবেদনা জানিয়েছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সিরাজুল মোস্তফা তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহিদুল ইসলাম, পৌরসভার মেয়র আওলাদ হোসেন লিটন, উপজেলা কৃষি অফিসার দিলরুবা খানমসহ কুষি অফিসের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

প্রতিবেদক: মাহফুজ মল্লিক
৫ সেপেটম্বর,২০১৮