Home / উপজেলা সংবাদ / মতলব উত্তর / মতলবে সৈয়দ ফয়জুল করীমের বিশেষ দোয়া মাহফিল

মতলবে সৈয়দ ফয়জুল করীমের বিশেষ দোয়া মাহফিল

নায়েবে আমীরুল মুজাহিদীন শায়খুল হাদিস আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়েখ চরমোনাই দাঃবাঃ আগমন উপলক্ষে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর বাজার দারুল উলূম কারিমিয়া মাদ্রাসার উদ্যোগে বিশেষ দোয়ার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

১১ নভেম্বর বুধবার বাদ জোহর মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর কারিমিয়া মাদ্রাসায় বিশেষ দোয়ার মাহফিল ও হালকায়ে জিকির অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বয়ান করেন ও মুনাজাত পরিচালনা করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীরুল মুজাহিদীন শায়খুল হাদিস আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই দাঃবাঃ।

এ সময় তিনি বলেন, রাসূল (স.) এর আগমণের সাথে সাথে প্রচলিত জাহেলী সমাজের ভিত নড়ে গিয়েছিল। নবী (স.) এর দাওয়াত ছিল- জাহেলিয়াকে অস্বীকার করে ইসলামের ঝান্ডাকে উড্ডীন করা। অথচ- আজকে আধুনিক কায়দায় পশ্চিমাদের সংস্কৃতি আমদানী করা হয়েছে। ইসলামের বৃহৎ স্বার্থেই এদের সাথে কোন আপোষ করা যাবেনা। হাদিসের উদ্বৃতি দিয়ে তিনি বলেন, রাসূল স. বলছেন যে ব্যক্তি জাহেলিয়াতের দিকে মানুষকে ডাকবে সে জাহান্নামের লাকড়ি হবে। চাই সে নামাজ পড়–ক, রোজা রাখুক এবং বড় দ্বীনদার মুসলমান বলে মনে করুক না কেন? মুসলিম শরীফ। তাই হাদীস থেকে জানা গেল- মুসলমান হয়েও যারা জাহেলিয়াতের দিকে আহবান করে তারা ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

মাহফিলে উপস্থিত হাজারো জনতার উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি আজ কোরআন হাদিসের কথা বলার জন্য আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। শুধু বলেই যাবো কোরআন হাদিসের কথা। মানানোর জন্য আমি আসি নাই। এ দায়িত্ব আমার নয়। আমার দায়িত্ব হল কোরআন-হাদীসের বাণী আপনাদের কাছে পৌছে দেওয়া।

তিনি কোরআনের উদ্বৃতি দিয়ে বলেন, যে ব্যক্তি আল্লাহ ও তার রাসূলের পূর্ণ আনুগত্য করবে আল্লাহ পাক তাকে তলদেশের নহর প্রবাহমান জান্নাতে প্রবেশ করাবেন। তারা অনন্তকাল তাতে অবস্থান করবে- সূরা ফাতাহা ১৭। অন্যত্র এরশাদ হচ্ছে- যে ব্যক্তি আল্লাহ ও তার রাসূলের কথা অমান্য করে চলবে আল্লাহ তাকে জাহান্নামে প্রবেশ করাবেন- সূরা নিসা ১৪। এখন মুসলমানদেরকে নেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রে গভীরভাবে চিন্তা করতে হবে। সে কি রাসূল সা.কে নেতা মেনে নিবে, তার নেতৃত্ব আদর্শ মেনে নিবে নাকি গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, পুজিবাদ, জাতীয়তাবাদ, ধর্মনিরপেক্ষতা প্রবক্তাদের নেতা মেনে নিবে। রাসূল সা. এর মৌলিক ৪টি বিষয়ের উপর মুসলমানদেরকে আমল করতে হবে। এর কোন একটিকে বাদ দেওয়া যাবেনা। দাওয়াত, তালিম, তাসকিয়ায় নাফ্স ও জিহাদ।

তিনি বলেন, ইসলাম এসেছে সব মানুষের শান্তি ও মুক্তির জন্য। অশান্তি সৃষ্টিকারী মুসলিম অমুসলিম যেই হোক তাকে দমন করাই ইসলামের নির্দেশ। আল্লাহর নবী (সা:) বলেন, যে অন্যায় দেখে সে যেন তা হাতে দমন করে। মানবতার স্বার্থে, সমাজ, দেশ ও রাষ্ট্রে অন্যায় বন্ধ করে ন্যায় চালু করা মুসলমানের কাজ। দুর্নীতি, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, সা¤প্রদায়িকতা এবং মানবতা বিরোধী সকল কাজ বন্ধ ও নির্মূল করাই ইসলামের উদ্দেশ্য। আল্লাহ মানব জাতিকে সৃষ্টি করেছেন মানুষের উপকার করার জন্য। তোমরা ভাল কাজের আদেশ দিবে। অন্যায় কাজে বাধা দিবে। আসলে ইসলামের শত্রুরাই সন্ত্রাসী আর জঙ্গিবাদী সৃষ্টি করে এবং অজ্ঞ মুসলমানদেরকে জঙ্গি হওয়ার পরিবেশ সৃষ্টি করে দিয়ে মুসলমান ও মুসলমান দেশের ক্ষতি করছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ছেংগারচর বাজার কারীমিয়া ক্বেরাতুল কোরআন মাদরাসার সভাপতি হাজী আহম্মদ উল্লাহর সভাপতিত্বে ও সুপার মাওলানা আতাউল্লাহ মহসিন এর পরিচালনায় বিশেষ দোয়ার মাহফিল ও হালকায়ে জিকির অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ছেংগারচর বাজার কেন্দ্রীয় শাহী জামে মসজিদ এর পেশ ইমাম ও খতিব আলহাজ¦ হযরত মাওলানা হাফেজ মোঃ তাজুল ইসলাম ইসলাম চাঁদপুরী, ছেংগারচর দর্জি বাজার জামে মসজিদ এর পেশ ইমাম ও খতিব মাওলানা মোঃ ইব্রাহিম খলিল আনন্দপুরী, মাদ্রাসার সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক মজিবুর রহমান বেপারী, ইসলামী আন্দোলন মতলব উত্তর উপজেলার মোঃ আমিনুল হক বেপারী, মোঃ শেখ ফরিদ বেপারী, ছেংগারচর পৌর বনিক সমবায় সমিতির উপদেষ্টা ডা.মোঃ কাউছার মেহেদী, হাফেজ মোঃ হাবিবুর রহমান মুফতি, মোঃ গাজী এমদাদুল হক মানিক, মাওলানা বাতেন ফরাজী, মোঃ রুবেল মিয়াজী, মোঃ মেহেদী হাসান, মোঃ রফিকুল ইসলাম লালন, মোঃ সাইদুল ইসলামসহ মতলব উত্তর উপজেলারমুজাহিদ কমিটি ও উপজেলার ইসলামী আন্দোলনের নেতৃবৃন্দ।

নিজস্ব প্রতিনিধি,১১ নভেম্বর ২০২০