Home / উপজেলা সংবাদ / ফরিদগঞ্জ / ফরিদগঞ্জে বাবা কর্তৃক মেয়েকে ধর্ষণ : ঘাতক আটক

ফরিদগঞ্জে বাবা কর্তৃক মেয়েকে ধর্ষণ : ঘাতক আটক

চাঁদপুর ফরিদগঞ্জে বাবা কর্তৃক নিজ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মেয়েটির মা মুক্তা বেগম বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ ধর্ষক মনির হোসেনকে আটক করতে সক্ষম হয়।

এমন চাঞ্চলকর ঘটনাটি ঘটে গত ২২ সেপ্টেম্বর ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৩নং সুবিদপুর পূর্ব ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড লক্ষীপুর চৌধুরী বাড়ির মৃত সেকান্তরের ছেলে মনির হোসেন (৩৭) এ ঘটনা ঘটায়।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়,  মনির হোসেনের স্ত্রী মুক্তা বেগম ২ ছেলে ও ১৪ বছরের এক মেয়েসহ ঢাকায় বসবাস করে। করোনা পরিস্থিতিতি তারা গ্রামের বাড়িতে  আসলে মেয়েটির বাবা গত ২২ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় মেয়েকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি কাউকে জানালে মেয়েকে হত্যা করার হুমকি দেয় । ধর্ষিতা মেয়েটি বাবার ভয়ে চুপ করে ছিল। মা বাড়িতে না থাকায় বিষয়টি খুলে বলার সাহস পায়নি। কিন্তু এরি মধ্যে প্রায় সময় ঘাতক বাবা মেয়েটিকে একের পর এক ধর্ষণ করেছে বলে অভিযেগে উল্লেখ করা হয়।

এ ঘটনা মেয়েটির দাদীর নজরে পড়লে তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।  গত ২৫ সেপ্টেম্বর মুক্তা বেগম মেয়েটিকে ঢাকায় নিয়ে গেলে সেখানে নিজ বাবার নির্মম ঘটনা খুলে বলে। মেয়েটির মা দ্রুত ঢাকা থেকে এলাকায় আসে এবং নিজ শাশুড়ির মুখের বর্ণনা শুনে ফরিদগঞ্জ থানায়  মনির হোসেনের বিরুদ্ধে ২৭ সেপ্টেম্বর  মামলা দায়ের করে।

ওই রাতেই মনিরকে আটক করে ফরিদগঞ্জ থানার পুলিশ।

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুর রকিব জানান, ধর্ষণ এখন ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে। বাবার কাছেও নিজ মেয়ের ইজ্জতের নিরাপত্তা নেই। যার বাস্তব প্রমান ধর্ষক মনির হোসেন। ধর্ষক মনির বিষয়টি স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে মামলার সকল কাগজপত্র তৈরি করে চাঁদপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে মেয়েটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা তার মায়ের হেফাজতে দেওয়া হয়েছে।

প্রতিবেদক:জহিরুল ইসলাম জয়,২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

ইন্টারনেট কানেকশন নেই