Home / বিশেষ সংবাদ / করোনা রিপোর্ট জালিয়াত চক্রের ডা. সাবরিনা গ্রেফতার
জেকেজি হেলথকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা

করোনা রিপোর্ট জালিয়াত চক্রের ডা. সাবরিনা গ্রেফতার

ঢাকা: করোনা পরীক্ষা না করে মনগড়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার জেকেজি হেলথ কেয়ারের সিইও আরিফ চৌধুরীর স্ত্রী ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরীকেও জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

১২ জুলাই রোববার দুপুরে ডিএমপির তেজগাঁও উপ-কমিশনারের (ডিসি) কার্যালয়ে সাবরিনাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়। তেজগাঁও বিভাগের ডিসি হারুন অর রশিদ সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ডা. সাবরিনা চৌধুরী। পেশায় হৃদরোগ সার্জন। টেলিভিশনগুলোর স্বাস্থ্য বিষয়ক টকশোতে নিয়মিত অংশ নিতেন। দিতেন সুস্থ্য থাকার নানা টিপস। সবকিছু ছাড়িয়ে ভয়ঙ্কর প্রতারণার অভিযোগে এখন তিনি ও তার খলনায়ক স্বামী আরিফ চৌধুরী আলোচনায়। যার চতুর্থ স্ত্রী হিসাবেই সাবরিনা পরিচিত। আরিফের দুই স্ত্রী থাকেন রাশিয়া ও লন্ডনে। আরেক স্ত্রী দেশেই থাকেন।

সম্প্রতি পূর্বের আলোচনা ছাড়িয়ে এ দম্পতি নতুন আরেক আলোচনায় এসেছেন। জেকেজি হেলথ কেয়ার নামের একটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তারা ২৭ হাজার করোনা রোগীর নমুনা সংগ্রহ করে কোনো রকম পরীক্ষা ছাড়াই ১৫ হাজার ৪৬০টি মনগড়া ভুয়া রিপোর্ট দিয়েছেন। বাকি ১১ হাজার ৫৪০টি রিপোর্ট দিয়েছে আইইডিসিআরের মাধ্যমে। জেকেজির গুলশানের অফিস থেকে ১৫ হাজার ৪৬০টি ভুয়া রিপোর্ট দিয়ে এই দম্পতি হাতিয়ে নিয়েছেন প্রায় ৮ কোটি টাকা।

করোনার রিপোর্ট জালিয়াতির দায়ে এরইমধ্যে সাবরিনা চৌধুরীর স্বামী আরিফ চৌধুরীসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির তেজগাঁও ডিভিশন। তারা এখন কারাগারে আছেন। পুলিশি তদন্তে তাদের ভুয়া রিপোর্ট প্রদানের সত্যতাও মেলেছে। এমনকি জালিয়াতির কাজে সংশ্লিষ্টতা মিলেছে ডা. সাবরিনা চৌধুরীর। জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের রেজিষ্টার সার্জন হয়েও তিনি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

ঢাকা ব্যুরো চীফ, ১২ জুলাই ২০২০

ইন্টারনেট কানেকশন নেই