Home / আন্তর্জাতিক / চীনে বাদুড় থেকেই করোনাভাইরাস
করোনা ভাইরাস
ভাইরাস

চীনে বাদুড় থেকেই করোনাভাইরাস

ব্রিটিশ জার্নাল ন্যাচারে প্রকাশিত একটি গবেষণার তথ্য বলছে বাদুড় থেকেই চীনে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে। তবে এবারের চীনের করোনাভাইরাসের মূল উৎস সম্পর্কে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি স্টারের প্রতিবেদনে বলা হয়, গবেষকরা উহান শহরের ৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর ওপর পরীক্ষা চালায়। এদের মধ্যে ৬ জনই সামুদ্রিক খাবার বিক্রির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিল। গবেষণায় বলা হয়, আক্রান্ত শরীরের করোনা ভাইরাস প্রায় ৯৬ শতাংশ বাদুড়করোনা ভাইরাসের সঙ্গে মিলে যায়। এদিকে চীনে বাদুড় স্যুপ খাওয়ার একটি ছবি সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী বেশ ভাইরাল হয়েছে। যা এই গবেষণাকে সমর্থন করে। তবে বিভিন্ন প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনের উহান শহরের কোন খাবারের বাজারে বাদুড় বিক্রি হয় না।

গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর চীনের উহান শহরের একটি হাসপাতালে করোনা ভাইরাস নিয়ে ভর্তি হওয়া আরো একজন রোগীর ওপর আরেকটি গবেষণা চালিয়ে দেখা যায় বাদুড়ের সাথে তার ভাইরাসের ৮৯ শতাংশ মিল রয়েছে । এই ব্যক্তিও স্থানীয় একটি সামুদ্রিক খাবারের বাজারে কাজ করতেন।

তবে শুধুমাত্র বাদুড়কে করোনা ভাইরাসের জন্য দায়ী করতে চাচ্ছেন না বিজ্ঞানীরা। এই বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অফ ইস্ট এংলিয়ার প্রফেসর ডায়ানা বেল বলেন, করোনা ভাইরাস নিয়ে উন্মুক্ত চিন্তা করা উচিত, আমার মনে হয় না শুধু বাদুড়দের থেকেই এটি ছড়িয়েছে।বাদুড় ছাড়া অন্য প্রাণীদের থেকে করোনা ভাইরাস ছড়ালো কিনা সেটিও খতিয়ে দেখার পরামর্শ দেন প্রফেসর ডায়ান বেল।

চীনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪২৫ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণঘাতি এই ভাইরাসে এখন পর্যন্ত চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ২০ হাজার ৪ শত ৩৮ জন। গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে করোনা ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। প্রতিনিয়ত এই ভাইরাসে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরে প্রাথমিক লক্ষণ হিসেবে শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি, কাশির মত সমস্যা দেখা দেয়।

ইন্টারনেট কানেকশন নেই