Home / চাঁদপুর / চাঁদপুরে র‌্যাবের অভিযানে দু’জনের কারাদণ্ড
RAB-obijan

চাঁদপুরে র‌্যাবের অভিযানে দু’জনের কারাদণ্ড

চাঁদপুরে র‌্যাব-১১ এর অভিযানে দুইজনকে কারাদণ্ড, এক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা ও ডিজিটাল স্টুডিও সীলাগালা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। একই সময়ে চাঁদপুর সদর নির্বাচন অফিসের পিয়ন আব্দুর রবকে পাসপোর্ট ও পাসপোর্ট ফরমসহ আটকের পর বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত র‌্যাব-১১ এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব ও চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অমিত চক্রবর্তীর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে সহযোগিতা করেন র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র এএসপি মুহিতুল ইসলামসহ র‌্যাব সদস্যবৃন্দ।

কারাদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- চাঁদপুর পৌরসভার ১৩নং ওয়ার্ডের মির্জাপুর গ্রামের ইব্রাহীম গাজীর ছেলে ও নির্বাচন অফিসের সামনের ট্রাস্ট মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট আলী হোসেন রানা (২৮) ও ওয়ারলেছ এলাকার গাজী বাড়ীর সিরাজুল ইসলাম গাজীর ছেলে ওমর গাজী (৩৮)।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অমিত চক্রবর্তী বলেন, নির্বাচন অফিসের সামনের ট্রাস্ট ব্যাংকের এজেন্ট রানার প্রতিষ্ঠান থেকে ১টি পাসপোর্ট, ১৩টি পুরণকৃত পাসপোর্ট ফরম ও ৭টি ভোটার আইডি কার্ড উদ্ধার করা হয়। তাকে টাউট আইনে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

একই এলাকায় নির্বাচন অফিসের সামনে মোটর বাইকের সাথে নিষ্ঠুরভাবে ছাগল বেধে নেয়ার কারণে পশু নির্যাতন আইনে ওমর গাজীকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

তিনি আরো বলেন, ওই এলাকার নাদিয়া ডিজিটাল স্টুডিওতে মালিক মানুকে না পেয়ে তার স্ত্রীকে পাওয়া যায়। তার স্ত্রী ক্যাশ থেকে টাকা নেওয়ার সময় তাকে আটক করা হয়। এ সময় ওই প্রতিষ্ঠান থেকে বেশ কয়টি পাসপোর্ট ফরমসহ অন্যান্য কাগজপত্র জব্দ করে প্রতিষ্ঠানটি সীলাগালা করা হয়।

একই সময় ভুবন ট্রাভেলস্ নামে প্রতিষ্ঠানটিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। ওই প্রতিষ্ঠান বহু সংখ্যক জাল কাগজপত্র, পাসপোর্ট ফরম, চেয়ারম্যান সার্টিফিকেটসহ নামে বেনামের সীল উদ্ধার করা হয়। অভিযানের টের পেয়ে প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী এ.এম. জোবায়ের হোসেন পালিয়ে যায়। তার সহকারী শান্ত প্রধানিয়াকে আটক করার পরে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অমিত চক্রবর্তী আরো বলেন, এসব অভিযানের পূর্বে জেলা নির্বাচন অফিসের নীচতলায় সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসের এমএলএসএস আব্দুর রবকে আটক করা হয়। তার কাছ পাসপোর্টের পুরনকৃত ২৮টি ফরম ও ব্যাংক রশিদসহ সংশ্লিষ্ট বহু কাগজপত্র জব্দ করা হয়। তাকে নিয়মানুসারে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা নির্বাচন অফিসারকে নির্দেশনা দেয়া হয় এবং আব্দুর রব এই ধরণের কাজ আর করবেনা মর্মে একটি অঙ্গীকার নামা প্রদান করে।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন অফিসার মো.হেলাল উদ্দিন বলেন, আব্দুর রবের বিষয়ে আগামী সপ্তাহের মধ্যে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলা হয়েছে। সে আলোকে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করা হয়েছে। আমরাও চাই দুষ্টু ও অপরাধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হউক। আমি এই ঘটনাকে দূর্ঘটনা হিসেবে দেখছি।

র‌্যাব-১১ কুমিল্লা কোম্পানী কমান্ডার মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাসপোর্ট অফিস এলাকায় প্রতারণা ও জালিয়াতির অভিযোগ পেয়ে এই অভিযান পরিচালনা করেছি। নির্বাচন অফিসের আব্দুর রব পাসপোর্ট অফিসের দালালির পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট দিয়েছে কিনা বিষয়টি তদন্ত করে দেখবো। তার কোন সংশ্লিষ্টতা পাওয়াগেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রতিবেদক:মাজহারুল ইসলাম অনিক

ইন্টারনেট কানেকশন নেই