Home / শীর্ষ সংবাদ / গ্যাস-বিদ্যুৎ বিল জমা দিতে নিরুৎসাহিত করছে সরকার
Gash current

গ্যাস-বিদ্যুৎ বিল জমা দিতে নিরুৎসাহিত করছে সরকার

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ব্যাংকে লাইন ধরে গ্যাস-বিদ্যুৎ বিল জমা দিতে নিরুৎসাহিত করছে সরকার। প্রয়োজনে বিল দেরি পরিশোধ করতে পারবেন গ্রাহকেরা। এজন্য কোনো জরিমানা দিতে হবে না।

বিদ্যুতের গ্রাহকদের জন্য গত ফেব্রুয়ারি থেকে আগামী এপ্রিল তিন মাস পর্যন্ত এবং গ্যাসের আবাসিক গ্রাহকদের জন্য গত ফেব্রুয়ারি থেকে আগামী মে মাস পর্যন্ত চার মাসের বিল পরিশোধে বিলম্ব মাশুল মওকুফ করা হয়েছে। ফলে এ সময়ে মধ্যে জরিমানা ছাড়া সুবিধাজনক সময়ে বিল জমা দিতে পারবেন গ্রাহকেরা।

আরো পড়ুন- নিত্যপণ্য ছাড়া মার্কেট ও শপিংমল বন্ধের ঘোষণা

রোববার বিদ্যুৎ বিভাগ এবং জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ এ সংক্রান্ত পৃথক আদেশ জারি করেছে। গ্যাসের অন্য গ্রাহকদের গ্যাস বিল পরিশোধের বিষয়ে আগের নিয়ম বহাল থাকবে।

জ্বালানি বিভাগের উপসচিব আকরামুজ্জামান স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে , নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে আবসিক গ্যাস বিল পরিশোধের জন্য বিপুল সংখ্যক গ্রাহককে প্রায় একই সময়ে উপস্থিত হতে হয়। বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে এমন পরিস্থিতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণকে তরান্বিত করে। তাই সরকার আবাসিক খাতে গ্যাস বিল পরিশোধ করার ক্ষেত্রে গ্যাস বিপণন নিয়মাবলী (গৃস্থালী)-২০১৪ এর নির্ধারিত সময়সীমা শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে আবাসিক গ্রাহকরা গত ফেব্রুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত চার মাসের গ্যাস বিল কোন প্রকার বিলম্ব ফি ছাড়াই আগামী জুন মাসে পরিশোধ করতে পারবেন। সব গ্যাস বিতরণ কোম্পানিকে এই আদেশ বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

বিদ্যুৎ বিভাগের উপসচিব আইরিন পারভীন স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, গ্রাহকেরা বিভিন্ন ব্যাংক এবং মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে থাকেন। বর্তমানে নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে অনেক গ্রাহকই জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা-বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন না এ প্রেক্ষিতে ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসের বিল অনেক গ্রাহক নির্ধারিত সময়ে মধ্যে পরিশোধ করতে পারবেন না। এজন্য এই তিন মাসের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে সারচার্জ বা বিলম্ব ফি ছাড়াই জমা দিতে পারবেন গ্রাহকেরা।

বার্তা কক্ষ, ২২ মার্চ ২০২০

ইন্টারনেট কানেকশন নেই