Home / উপজেলা সংবাদ / কচুয়ায় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা : তদন্ত টীমের কাজ শুরু

কচুয়ায় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা : তদন্ত টীমের কাজ শুরু

চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার ভূইয়ারা উচ্চ বিদ্যালয়ে চাঁদার ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপর সন্ত্রাসীদের হামলায় ওই বিদ্যালয়ের প্রায় অর্ধশত ছাত্র-ছাত্রী আহত হওয়ার ঘটনায় ৪ সদস্যের তদন্ত টিম কাজ শুরু করেছেন। বৃহস্পতিবার থেকে তদন্ত কমিটি এ কাজ শুরু করেন।

উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক গঠিত ৪ সদস্য টিমের আহবায়ক, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ হায়দার আলী, সদস্য উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আহসান উল্যাহ চৌধুরী, উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা আবেদ মিয়া ও উপজেলা পল্লী বিদ্যুৎ ডিজিএম মোঃ জাকির হোসেন গতকাল বিদ্যালয়ে সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত শিক্ষক-শিক্ষার্থী এলাকাবাসী ও অভিযুক্তদের সাথে কথা বলেন।

হামলার ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দুলাল চন্দ্র সরকার বাদী হয়ে কচুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং ০৫। এ মামলার আসামি হিসেবে স্থানীয় যুবক মনির হোসেন, লিটন মিয়া, মুজাম্মেল হোসেন, ফারুক হোসেন ও ফারুকের বোন স্কুল ছাত্রী পপি আক্তার গ্রেফতার হয়ে কয়েক মাস জেল খেটে সম্প্রতি জামিনে মুক্তি পায়।

মামলার আসামি মনির হোসেন, লিটন মিয়া ও ফারুক হোসেন তদন্ত কমিটির সামনে এসে তারা আত্মপক্ষ সমর্থন করে বলেন, উপবৃত্তির টাকা বিতরণ বিষয় নিয়ে কতিপয় লোকজনের দ্বারা আমরা ষড়যন্ত্রের শিকার। ছাত্র-ছাত্রীদের উপর আমরা কোনো হামলা করিনি। বরং কতিপয় বিএনপি জামাতের লোকজন শিক্ষার্থীদের উষ্কে দিয়ে আমাদের বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে। আমরা মিথ্যা মামলার আসামি হয়ে কারাবরণ করি। আমরা প্রশাসনে কাছে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন ও ন্যায় বিচার দাবি করছি।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে কর্মসূচি পালনের জন্যে কতিপয় যুবক ভূঁইয়ারা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দুলাল চন্দ্র সরকার ও সহকারী শিক্ষক ফজলুর রহমানকে লাঞ্ছিত করে। এ ঘটনার পরদিন ১৬ আগস্ট বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ সমাবেশ করলে সন্ত্রাসীদের হামলায় অন্তত ৪০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়।

জিসান আহমেদ নান্নু, কচুয়া করেসপন্ডেন্ট

 

||আপডেট: ০৭:৩১ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৫, বৃহস্পতিবার

এমআরআর