Home / উপজেলা সংবাদ / কচুয়ায় দলীয় ১৬ প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণা

কচুয়ায় দলীয় ১৬ প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণা

কচুয়া পৌরসভা নির্বাচনী লড়াই যুদ্ধে মেয়র পদে আওয়ামীলীগের ১৩, বিএনপির ২, জাতীয় পার্টি ১ জনসহ সমমনা দলের প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দিতা করতে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার আশায় জোর তদবীর লভিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রার্থীগণ অনেকেই পাড়া, মহল্লা, গ্রামসহ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দির ও বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চষে বেড়াচ্ছেন। বিভিন্ন দর্শনীয় সামাজিক আচার অনুষ্ঠান ও শোকাবহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে নিজেদের প্রার্থীতার কথা তুলে ধরছেন ভোটার ও কাউন্সিলরদের কাছে। বিশেষ করে হিন্দু ধম্বালম্বীদের অনুষ্ঠান পরিদর্শন ও বিভিন্ন ভাবে আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অনেকে।

নানা কৌশল অবলম্বন করে ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা করছেন এসব প্রার্থীরা। পৌর এলাকায় ব্যানার, পোষ্টারসহ সর্বত্রে প্রচার প্রচারনার কাজে ব্যস্ত রয়েছেন।

আর ভোটাররাও তাদের ভোটের হিসাব নিকাশ শুরু করে দিয়েছেন। বিভিন্ন হোটেল , রেস্তোরা, দোকান পাটে এখন একটাই আলোচানা, এবারের নির্বাচনে পৌর মেয়র কে হবেন?

ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় নেতা থেকে শুরু করে স্থানীয় সংসদ সদস্যের কাছে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য বার বার ধরনা দিচ্ছেন। কচুয়া পৌরসভা নির্বাচনে গত দু’বার মেয়র পদে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মোঃ হুমায়ুন কবির প্রধান জয় লাভ করে। পৌরবাসীর দাবি, কাঙ্খিত প্রার্থী এবারো মনোনয়ন না পেলে আওয়ামীলীগের প্রার্থীর ভরাডুবির আশংকা রয়েছে। যদিও গত রবিবার উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন বিতরণের শেষ দিনে মেয়র পদে ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেছেন। তবে নীতি নির্ধারনী সূত্রে জানা গেছে, আওয়ামীলীগে একক প্রার্থী বাছাইয়ে জোর প্রচেষ্টা চলছে।

এবারের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন বা টিকেটই হলো মুখ্য বিষয়। দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দলের বাইরে তথা মনোনয়নবিহীন কোন নেতা বা কর্মী দলের দোহাই দিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করতে পারবেন না। প্রতিদ্বন্দিতা করতে গেলে তাকে দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে সাজা ভোগ করতে হবে।

কচুয়া পৌরসভায় এ বারের পৌর নির্বাচনে ক্ষমতাশীল আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি এ ৩টি দলের মধ্যে নির্বাচনী লড়াই হবে হাড্ডা-হাড্ডি। ক্ষমতাশীল আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থীরা প্রচার প্রচারণায় মাঠে থাকলেও বিএনপি ও জাতীয় পার্টি’র প্রার্থীদের প্রচারণা তেমন লক্ষ্য করা যায়নি।

আওয়ামীলীগের সম্ভ^াব্য প্রার্থীদের মধ্যে যাদের নাম শুনা যাচ্ছে, তারা হলেনঃ পৌর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক মন্জুর আহমেদ সুজন, আওয়ামী লীগ নেতা আক্তার হোসেন সোহেল ভূইয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আহসান হাবিব প্রাঞ্জল, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জামাল হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আহসান হাবিব প্রধান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নাজমুল আলম স্বপন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ আঃ জব্বার বাহার, যুবলীগ নেতা মনির হোসেন প্রধান, ফরহাদ হোসেন জাকির, আওয়ামীলীগ নেতা ইঞ্জি. মোতাহার হোসেন প্রধান দুলাল, অধ্যাপক কবির হোসেন, মোঃ মাসুদ মিয়াজী ও অষ্টেলিয়ান শাখা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজাদ। জাতীয় পার্টির নেতা ও বর্তমান কাউন্সিলর ইদ্রিছ আলম বেপারী। বিএনপি সমর্থিত বর্তমান মেয়র ও উপজেলা বিএনপির আহবায়ক মোঃ হুমায়ুন কবির প্রধান ও উপজেলা বিএনপি’র যুববিষয়ক সম্পাদক আবু তাহের মিয়া।

জিসান আহমেদ নান্নু, কচুয়া করেসপন্ডেন্ট

।।  আপডেট: ০৯:৩৩ পিএম, ১৭ নভেম্বর ২০১৫, মঙ্গলবার

ডিএইচ