Home / চাঁদপুর / আমি একজন আপন মানুষকে হারালাম : শিক্ষামন্ত্রী

আমি একজন আপন মানুষকে হারালাম : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ইকরাম চৌধুরীর মৃত্যুর মধ্য দিয়ে আমি যেন আমার ভাই, সুহৃদ ও একজন আপন মানুষকে হারালাম। আমি খুবই শোকাহত। আমার যেকোনো প্রয়োজনে তিনি পাশে দাঁড়িয়েছেন। আমিও চেষ্টা করেছি তার পাশে দাঁড়াতে। তিনি ছিলেন বহুগুণের অধিকারী একজন সজ্জন ব্যক্তি।

তিনি আরও বলেন, চাঁদপুরের সাংবাদিক জগতে তিনি ছিলেন একজন অভিভাবক। তিনি চাঁদপুরের সাংবাদিক জগতকে এক ও অভিন্ন রাখার চেষ্টা করে গেছেন। শিক্ষামন্ত্রী যেকোনো প্রয়োজনে মরহুম ইকরাম চৌধুরীর পরিবারের পাশে থাকবেন বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন।

প্রিয়জনদের কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন সাংবাদিক নেতা, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের একাধিকবারের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ইকরাম চৌধুরী। শনিবার বিকেলে চাঁদপুর প্রেসক্লাব মাঠে প্রথম এবং চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে দ্বিতীয় ও তৃতীয় নামাজে জানাজার পর পৌর কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়েছে তাকে।

চাঁদপুর প্রেসক্লাব মাঠে অনুষ্ঠিত মরহুমের প্রথম জানাজার আগে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মুঠোফোনে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি। তিনি সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরীর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

মুঠোফোনে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. সাইফুল আলম ও জাগো নিউজের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মহিউদ্দিন সরকার। এছাড়া বক্তব্য রাখেন ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জাহিদুল ইসলাম রোমান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী।

মরহুমের বর্ণাঢ্য সাংবাদিকতা জীবনের উপর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত, গোলাম কিবরিয়া জীবন, প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন, সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ জালাল চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এএইচএম আহসান উল্লাহ, সাবেক সভাপতি শহীদ পাটোয়ারী, ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, বিএম হান্নান ও মরহুম ইকরাম চৌধুরীর পরিবারের পক্ষে প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শরীফ চৌধুরী।

আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, সোহেল রুশদী, জিএম শাহীন, মির্জা জাকির, লক্ষণ চন্দ্র সূত্রধর, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরান শোভন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শান্ত, আলম পলাশ, প্রচার সম্পাদক মাহবুবুর রহমান সুমন, কোষাধ্যক্ষ রিয়াদ ফেরদৌস, জেলা ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি একে আজাদ, সাধারণ সম্পাদক তালহা জুবায়ের। এছাড়াও বিভিন্ন উপজেলা থেকে আসা সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে দ্বিতীয় ও তৃতীয় জানাজার পূর্বে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গনি পাটওয়ারী, জেলা বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক সফিউদ্দিন আহমেদ, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ ফাউন্ডেশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাপ্তাহিক সকালের খবরের সম্পাদক ও প্রকাশক মোশাররফ হোসেন লিটন ও পরিবারের পক্ষে ইকরাম চৌধুরীর বড় ভাই সাংবাদিক মুনির চৌধুরী।

শনিবার (৮ আগস্ট) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন সাংবাদিক ইকরাম চৌধুরী। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস, কিডনিসহ নানা জটিল রোগে আক্রান্ত ছিলেন।

ইকরাম চৌধুরী চ্যানেল আইয়ের স্টাফ রিপোর্টার, জাগো নিউজের জেলা প্রতিনিধি এবং স্থানীয় দৈনিক চাঁদপুর দর্পণের সম্পাদক ও প্রকাশক ছিলেন।

স্টাফ করেসপন্ডেট, ৯ আগস্ট ২০২০

ইন্টারনেট কানেকশন নেই