Home / চাঁদপুর / চাঁদপুরে আরো ডজনখানেক মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ
surrendar-case-chandpur

চাঁদপুরে আরো ডজনখানেক মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে আরো ডজনখানেক মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারী আত্মসমর্পণ করেছে। মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় স্বেচ্ছায় এসে তারা আত্মসমর্পন করে।

আত্মসমর্পনকারীরা হলোঃ শহরের পশ্চিম বিষ্ণুদী এলাকার আঃ মতিন মাঝির ছেলে মো. সুমন মাঝি (৩২), বিষ্ণুদী মাদ্রাসা রোডের মৃত লোকমান হোসেনের ছেলে মো. সজীব হোসেন সেতু (২১), তালতলা এলাকার মৃত জহিরুল ইসলাম পাটওয়ারী ছেলে মো. মেরাজুল ইসলাম রিয়েল পাটওয়ারী (৩৪),

কলিশাডুলী মৃত আঃ মান্নানের ছেলে মো. রাসেল বেপারী (২৫), উত্তর চেয়ারম্যান ঘাট জিটি রোডের মো, আলমগীর বেপারীর ছেলে মো. আশিকুর রহমান রনি (২০), তালতলা এলাকার মোহাম্মদ জয়নাল পাটওয়ারীর ছেলে মানিক পাটওয়ারী (৩৮), প্রফেসার পাড়া মোল্লা বাড়ির মৃত সাবু মিয়ার ছেলে মো. মফিজুল ইসলাম (১৬), শিলন্দিয়া কসাই বাড়ির মৃত জামাল গাজীর ছেলে মিজান গাজী প্রকাশ কসাই মিজান (৩৫), হাপানিয়া মিজি বাড়ির আঃ মান্নান মিজির ছেলে মো. ইমাম হোসেন পাবেল (৩২),

উত্তর চেয়ারম্যান ঘাট বিটি রোডের মৃত আলী বেপারীর ছেলে মো. আলমগীর বেপারী (৪৮), পশ্চিম বিষ্ণুদী চৌধুরী বাড়ির আফজাল চৌধুরীর ছেলে আল আমিন (২২), উকিল পাড়া জাহানারা গাডেনের মৃত মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে মো. জাহিদুল ইসলাম তুহিন (৩৯)।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. জাহেদ পারভেজ চৌধুরী বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহন করেছেন। সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরেও মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিজের ভুল বুঝতে পেরে ১২জন আত্মসমর্পন করে।

এভাবে স্বেচ্ছায় এসে আত্মসর্পন করার দিষ্টান্ত কোনো জেলাতে নেই। আমরা চেষ্টা করবো কোন ভাল মানুষ যেন মাদকের অপরাধীর আওয়তায় না আসে। মাদকের সাথে জড়িত কেউ ছাড় পাবে না।

আত্মসমর্পনকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা হয়তোবা কারো প্ররোচনা বা লোভে এ পথে পা বাড়িয়েছেন। আমরা চাই আপনারা সুস্থ জীবনে ফিরে আসেন। মাদকাসক্ত সন্তানরা পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য হুমকি স্বরূপ। দেশ এগুতে হলে সুস্থ সমাজের দরকার।

তাই সরকার মাদকের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। তোমরা মাদক থেকে ফিরে এসে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করো। তোমরা একটি বার নিজের পরিবারে বাবা মা ভাই বোনের দিকে তাকিয়ে এ পথ পরিহার করতে হবে।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, এখন থেকে আপনাদের সন্তানদের প্রতি আরো বেশি নজরদারি করতে হবে। যাতে আবারো আগের পথে ফিড়ে যেতে না পারে। আত্মসমর্পনকারীরা কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিতে হবে। কোন কাজ’ই ছোট নয়।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হারুনুর রশীদ, সেকেন্ড ওসি মো. মনির আহমেদ, এসআইন অনুপ চক্রবর্তীসহ চাঁদপুর সদর মডেল থানার অন্যন্য পলিশ সদস্যরা।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ জানুয়ারি ‘চলো যাই যুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে’ এ শ্লোগানে মডেল থানায় মাদক, নারী নির্যাতন, ইভটিজিং ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে আত্মসমর্পন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে জেলা সদরের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ৪৮ মাদকসেবী ও ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করে।

সিনিয়র স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯