Home / অর্থনীতি / কৃষি জমি সুরক্ষায় আইন প্রণয়ন হচ্ছে : গণপূর্তমন্ত্রী

কৃষি জমি সুরক্ষায় আইন প্রণয়ন হচ্ছে : গণপূর্তমন্ত্রী

গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশররফ হোসেন বলেছেন, জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে আবাসন চাহিদাও বাড়ছে। বাড়তি এ চাহিদা পুরণ করতে প্রতিনিয়তই কৃষি জমির ওপর চাপ বাড়ছে। এ ছাড়াও শিল্পায়ন ও নগরায়নের কারণেও কৃষি জমির পরিমাণ কমে যাচ্ছে। তাই কৃষি জমি সুরক্ষায় আইন প্রণয়ন করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার(২৭ ডিসেম্বর) মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে ‘খাদ্য নিরাপত্তায় কৃষিজমি রক্ষাকল্পে পরিকল্পিত গ্রাম-নগরায়ন ও গৃহায়ন’ শীর্ষক জাতীয়ভিত্তিক সুপারিশ উপস্থাপন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স অব বাংলাদেশ (আইডিইবি) এ সুপারিশ প্রণয়ন করেছে।

গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, খাদ্য চাহিদার মত বাসস্থানও মানুষের মৌলিক চাহিদা। এ চাহিদা পুরণ করতে হলে পরিকল্পিত আবাসন গড়ে তোলার বিকল্প নেই। জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ পরিকল্পিত আবাসন গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছে। কৃষিজমি সুরক্ষা করতে পরিকল্পিতভাবে গ্রাম গড়ে তোলা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রেও জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের কাজ করার সুযোগ রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, পারিবারিক জমিতে পরিকল্পিত আবাসিক ভবন নির্মাণ করে নির্মাণ ব্যয় দীর্ঘমেয়াদি কিস্তিতে পরিশোধের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। আইডিইবি’র সুপারিশমালায় অনুর্বর জমিতে শিল্পকারখানা স্থাপন, অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা, কৃষিজমির জোনিংম্যাপ প্রস্তুত করাসহ বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরা হয়েছে। সুপারিশমালা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে আইডিইবি’র সভাপতি জানান।

এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থেত ছিলেন, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আখতার হোসেন, রাজউকের সদস্য আব্দুর রহমান, আইডিইবি’র সভাপতি এ কে এম এ হামিদ, সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমান।

নিউজ ডেস্ক ।। আপডটে,বাংলাদশে সময় ০৮ : ২৩ পিএম, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৬ মঙ্গলবার
এজি/এইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

কচুয়ায় বৃষ্টিতে ইরি ধানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

চাঁদপুর ...